Press "Enter" to skip to content

কেন্দ্রের দেওয়া ভ্যাকসিনে রাজ্য দেবে নিজের মতো করে শংসাপত্র, থাকবে মুখ্যমন্ত্রীর ছবি


ঃ েশনে সার্টিফিকেটে কার ছবি থাকবে, সেই নিয়েই চলছে দড়ি টানাটানি। যেহেতু কেন্দ্রের তরফ থেকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে, সেহেতু ভ্যাকসিনের সার্টিফিকেটে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra ) ছবি থাকত। কিন্তু দেশের দলগুলো বারবার এই নিয়ে আপত্তি তুলেছে। আর এবার রাজ্য সরকার ভ্যাকসিনেশনের পর দেওয়া সার্টিফিকেট নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিল। এবার থেকে কেন্দ্রের পাশাপাশি রাজ্যের তরফ থেকেও একটি সার্টিফিকেট দেওয়া হবে, যাতে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ছবি থাকবে।

স্বাস্থ্য দফতরের সুত্র অনুযায়ী, তৃতীয় পর্যায়ে ১৮ থেকে ৪৪ বছর অবধি যাদের টিকা দেওয়া হচ্ছে, তাঁদের শংসাপত্রে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি থাকবে। টিকা নেওয়ার পর রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর থেকে তাঁদের একটি ম্যাসেজ করা হবে, সেখানে একটি লিঙ্ক থাকবে। সেই লিঙ্কে ক্লিক করলেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেওয়া শংসাপত্র ডাউনলোড করা যাবে। এরপর টিকাপ্রাপক চাইলেই সেটিকে প্রিন্ট করিয়ে রাখতে পারে।

রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতের সুত্র অনুযায়ী, কেন্দ্র আর রাজ্যের দুটি সার্টিফিকেটই আলাদা হবে। কেন্দ্রের তরফ থেকে দেওয়া সার্টিফিকেটে একটি ইউনিক কোড দেওয়া হয়, সেটা রাজ্যের সার্টিফিকেটে থাকবে না। এছাড়াও কেন্দ্রের সার্টিফিকেটে দ্বিতীয় ডোজ কবে দেওয়া হবে, সেটা উল্লেখ থাকে। রাজ্যের সার্টিফিকেটে সেটা থাকবে না। রাজ্যের দেওয়া সার্টিফিকেটে ‘সজাগ থাকুন, নিরাপদে থাকুন” বার্তা বাংলা এবং ইংরেজিতে লেখা থাকবে। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রীর ছবিও থাকবে।

একদিকে টিকার সার্টিফিকেটে প্রধানমন্ত্রীর ছবি দেওয়া নিয়ে আপত্তি দেখিয়েছিল কংগ্রেস এবং স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু এখন সেই মুখ্যমন্ত্রীর ছবিই টিকার সার্টিফিকেটে থাকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। যদিও ওয়াকিবহাল মহলের মতে, রাজ্যের তরফ থেকে ১৫০ কোটি টাকার মতো খরচ করার হয়েছে টিকা কেনার জন্য। তাই রাজ্যের শংসাপত্রে মুখ্যমন্ত্রীর ছবি থাকলে আপত্তি কোথায়?