Press "Enter" to skip to content

কোভিডে অনাথ হওয়া শিশুদের পরিসংখ্যান না দেওয়ায় মমতা সরকারকে তুলোধোনা সুপ্রিম কোর্টের

নয়া ে () করোনায় অনাথ হওয়া সন্তানদের দেখভাল আর চাইল্ড শেল্টার হোমগুলোকে করোনার সংক্রমণ থেকে বাঁচানোর ব্যবস্থা করার দিশায় শুনানি হয়। শীর্ষ আদালত নিজে থেকেই এই ইস্যুটি তুলে ধরেছে। সুপ্রিম কোর্ট সমস্ত রাজ্যগুলোকে নির্দেশ দিয়ে বলেছিল, করোনায় অনাথ হওয়া বাচ্চাদের তথ্য জোগাড় করে জাতীয় শিশু কমিশন (NCPCR)-এর পোর্টালে আপলোড করতে। সব রাজ্য করলেও পশ্চিমবঙ্গ আর দিল্লী সরকার এখনও এই কাজ করে উঠতে পারেনি।

সুপ্রিম কোর্ট তৃণমূল সরকারকে বলে, যেসব বাচ্চাদের সুরক্ষা আর যত্নের দরকার তাঁদের কথা মাথায় রেখে পুরনো আদেশকে যেন পালন করা হয়। বাংলার আইনজীবীকে সুপ্রিম কোর্ট বলে, তিনি যেন নিজে বাংলায় অনাথ হওয়া বাচ্চাদের তথ্য জোগাড় করার জন্য সরকারকে বলেন, আর সেগুলো যেন অতি শীঘ্রই NCPCR পোর্টালে আপলোড করা হয়।

মার্চ ২০২০-র পর অনাথ হওয়া বাচ্চাদের নিয়ে এই সিদ্ধান্ত নেয় সুপ্রিম কোর্ট। শীর্ষ আদালত বলেন, সমস্ত রাজ্য তাঁদের নির্দেশ মেনে NCPCR পোর্টালে তথ্য ভাগ করে নিয়েছে। কিন্তু একমাত্র পশ্চিমবঙ্গ সরকারই এই আদেশে এখনও কর্ণপাত করেনি। শীর্ষ আদালত রাজ্য সরকারকে ভর্ৎসনা করে বলে, সরকার যেন কোনও বাহানা না দেয়, কারণ সব রাজ্যই আদেশের পালন করেছে। শুধুমাত্র বাংলার জন্য এটা বিভ্রান্তিকর হতে পারে না।

https://platform.twitter.com/widgets.js

পাশাপাশি আদালত এও বলেছে যে, পশ্চিমবঙ্গ সরকার যেন শুধু তথ্যগুলোকে আপলোড করে হাতে হাত ধরে না বসে থাকে। তাঁরা যেন অনাথ হওয়া বাচ্চাদের জন্য চলা প্রকল্পগুলো সঠিক ভাবে চালনা করে, আগামী নির্দেশ জারি হওয়ার আগেই যেন এই কাজ হয়ে যায়। যদিও শীর্ষ আদালত এটা স্বীকার করেছে যে, এই প্রক্রিয়ায় সময় লাগে। পাশাপাশি তামিলনাড়ু রাজ্যকেও বিশেষ নির্দেশ দিয়েছে আদালত।