Press "Enter" to skip to content

ক্রান্তিকারী পদক্ষেপ মোদী সরকারের!! আরবের মুসলিমদেশগুলিকে ঝটকা দিতে চলেছে ভারত।

[sg_popup id=”1″ event=”onload”][/sg_popup]বর্তমানে বিশ্বের বিকশিত দেশগুলি তেল ছেড়ে বিদ্যুৎচালিত যানবাহনের দিকে মন দিয়েছে। কারণ এবার মধ্যেএশিয়ার আরবীয় দেশগুলির তেলের ভান্ডার শেষ হয়ে আসছে। ীদের মতে, আর কিছু বছরের মধ্যে ে থাকা তেলের খনি শুন্য হয়ে পড়বে। আর এই কারণেই আরবের দেশগুলি তাদের দেশকে পর্যটন কেন্দ্রিক দেশ বানানোর চেষ্টায় রয়েছে। আপনারা হয়তো জানেন যে বর্তমানে সৌদি আরবের মতো কট্টরপন্থী দেশগুলোও হিন্দু তৈরী করছে তাদের পর্যটন কেন্দ্র বাড়ানোর জন্য।

ভারতের বর্তমান সরকারও বুঝতে পেরেছে যে আর বেশিদিন তেলের উপর নির্ভর করে থাকা সম্ভব নয়। তাই মোদী মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পের আওতায় দেশে ইলেক্টিচলিতে গাড়ি তৈরী নির্দেশ দিয়েছে যার মধ্যে কিছু গাড়ি বর্তমানে মহারাষ্টে ও ে সফল পরীক্ষণ করা হচ্ছে।

আপনাদের আরো জানিয়ে রাখি, ভারতের ভবিষ্যত এর কথা ভেবে মেক ইন্ডিয়া প্রকল্পের আওতায় দেশের সমস্থ গাড়ি তৈরীকারী সংস্থাকে ইলেক্টি চালিত গাড়ি তৈরির নির্দেশ দিয়েছে। সম্প্রতি হিমাচল প্রদেশে যে ইলেক্টি চালিত গাড়ি আনা হয়েছে তা BYD অটো ইন্ডাস্ট্রিজ ও গোল্ডস্টোন ইনফ্রারেট লিমিটেড তৈরী করেছেন।

এই বাসগুলি পাথরবহুল এবং সমস্থরকমের খারাপ রাস্তায় পরীক্ষণ করে সফলতা পাওয়া গেছে। এই বাসগুলি সম্পূর্ণ চার্জ হতে ৪ ঘন্টা সময় লাগে এবং এই চার্জ বাস ২০০ কিমি রাস্তা অতিক্রম করতে পারে। বেশি সংখ্যায় এই বাস তৈরি সম্পন্ন হলেই আর আরবের মুসলিমদেশগুলি থেকে আর ভারতকে তেল কিনতে হবে না।

বর্তমানে বিশ্বে ভারত তেল আমদানির দিকে সবথেকে এগিয়ে। অর্থাৎ তেলের জন্য ভারতকে একটা বিশাল অংকের টাকা খরচ করতে হয়। কিন্তু ভারত ইলেক্টি চালিত গাড়ি পর্যাপ্ত মাত্রায় রাস্তায় নামলেই বিপদে পড়বে মুসলিম দেশগুলি এবং একই সাথে লাভবান হবে ভারত।
শুধু আর্থিকদিক থেকে নয়, ভারতকে দূষণের হাত থেকে বাঁচতেও এই ইলেক্টি গাড়ি অনেক কার্যকরি বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গাড়ি তৈরী কারী সংস্থাদের পেট্রল, চালিত গাড়ি ছেড়ে ইলেক্টি চালিত গাড়ি তৈরির জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।মোদী সরকার জানিয়েছে যদি কোন গাড়ি তৈরীকারী সংস্থা ইলেক্টি গাড়ির তৈরী দিকে মন না দেয় তাহলে ভবিষ্যত খারাপ অবস্থার জন্য সরকারকে দায়ী করতে পারবে না।

মোদী সরকার জানিয়েছে, ২০৩০ এর মধ্যে ভারতের সমস্থ যানবাহন ইলেক্টি চালিত গাড়ী হবে। যদিও বিশেষজ্ঞদের দাবি, যে হরে কাজ চলছে তাতে ২০৩০ এর আগেই ভারতের যানবাহন পেট্রল,ডিজেল মুক্ত হবে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.