Press "Enter" to skip to content

খালি চেয়ার দেখে সভা ছেড়ে পালিয়ে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী, বাহানা দিয়ে উঠলেন আত্মীয়ের বাড়িতে

[ad_1]

পাঞ্জাব থেকে কংগ্রেসের জন্য যে খবর সামনে এসেছে তা মোটেই ভালো নয়। পাঞ্জাবের বিধানসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক মহলে উত্তপ্ত রয়েছে। সমস্ত পার্টির নেতারা ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টায় লেগে পড়েছে। এসবের মধ্যে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরঞ্জিত সিং চান্নি গুরুদাসপুরের সভাতে বক্তব্য দেওয়ার জন্য রওনা দিয়েছিলেন।

তবে সেখানে তিনি পান্ডেল খালি দেখে সভা স্থল যাওয়ার পথ থেকেই পলায়ন করেন। মুখ্যমন্ত্রী চান্নি খবর পাওয়া মাত্র নিজের সিদ্ধান্ত বদলে নেন এবং এক আত্মীয়ের বাড়ি চলে যান। পাঞ্জাব কংগ্রেসের জন্য এটা খুবই চিন্তার সংবাদ যে তার সভায় ভীড় জমানোর লোক হয়ে উঠেনি।

আসলে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী যখন হেলিপ্যাডে পৌঁছান তখন তার কাছে খবর যায় যে সভাতে ভীড় হয়নি। এরপর তিনি হেলিপ্যাড থেকে এক আত্মীয়র বাড়িতে রওয়ানা দেন। অবশ্য কিছু সময় পর চরঞ্জিত সভাতে ফিরে আসেন এবং কিছুক্ষণ বক্তব্য রেখে চলে যান।

জানিয়ে দি, সভার যে ছবি সামনে এসেছে তাতে চেয়ার একবারে ফাঁকা দেখা যাচ্ছে। জানিয়ে দি, চরণজিৎ সিং এমারজেন্সি কাজের বাহানা দিয়ে সভা থেকে পালিয়ে যান। এমনিতে পার্টির মধ্যেও চরঞ্জিত সিংয়ের বিরোধিতা তীব্র হয়ে উঠেছে। শুধু তাই নয়, দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল পাঞ্জাবে জোর প্রচার শুরু করেছেন এবং তার প্রথম টার্গেটে রয়েছেন চরঞ্জিত সিং চান্নি।

[ad_2]