Press "Enter" to skip to content

গজনী গেটও ভেঙে গুঁড়িয়ে দিলো তালিবান, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ভিডিও


নয়া ঃ আফগানিস্তানে তালিবানের আতঙ্ক লাগাতার জারি রয়েছে। সম্প্রতি পাওয়া অনুযায়ী, সংগঠন এবার বিশ্ব প্রসিদ্ধ ‘গজনী গেট”কে ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছে। এই গেটটি ি আর ঐতিহ্যের প্রতীক ছিল। কিন্তু তালিবানিদের তা পছন্দ হয়নি। গজনী গেট ভাঙার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্রুত গতিতে ভাইরাল (Viral Video) হচ্ছে। এই গেটটি আশরফ গনির ইসলামিক সাম্রাজ্যের স্থাপনার শরণে বানিয়েছিল।

বলে দিই, এর আগে জঙ্গিরা িয়ানে হজরা নেতা আবদুল আলি মাজারির মূর্তিও ভেঙে ফেলেছিল। বামিয়ান সেই জায়গা, যেখানে ২০০১ সালে তালিবান তাঁদের নেতা মুল্লা মহম্মদ উমরের আদেশে শতাব্দী প্রাচীন বুদ্ধ মূর্তি ভেঙে ফেলেছিল জঙ্গিরা।

আবদুল আলি মাজারি আফগানিস্তানের হজরা সংখ্যালঘু আর শিয়াদের জন্য একজন প্রসিদ্ধ নেতা ছিলেন। ১৯৯৬ সালে তালিবানের জঙ্গিরা মাজারিকে নৃশংস ভাবে হত্যা করার পর তাঁর দেহ গজনীতে হেলিকপ্টার করে নিচে ফেলে দেয়।

বলে দিই, আফগানিস্তানে তালিবানের আতঙ্কের কারণে সেখানকার শিল্প, কাজ এবং ব্যাংক সমস্ত কিছু বন্ধ হয়ে পরে রয়েছে। দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত জিনিশের দাম আকাশ ছোঁয়ার ফলে সেখানকার নিরীহ মানুষরা খালি পেটে থাকতে বাধ্য হচ্ছে। হাজার হাজার মানুষ দেশ ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয়েছে। যারা দেশ ছাড়তে পারেন নি, তাঁর দুবেলার আর ওষুধ কিছুই জোগাড় করতে পারছেন না। এমনকি টাকার জন্য গহনা বিক্রি করার উদ্যোগ নিলেও, সেই গহনা কেনার মতো কেউ নেই।