Press "Enter" to skip to content

গলায় গামছা নিয়ে ধরনা মঞ্চে বসে আছেন মুখ্যমন্ত্রী, মেলেনি সেনার অনুমতি



কুলকাতাঃ সোমবার রাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা কমিশন। সোমবার রাত ৮টা থেকে মঙ্গলবার রাত ৮টা পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচনী প্রচার এবং কোনও বিবৃতি দিতে পারবেন না। কমিশনের এই সিদ্ধান্তকে অগণতান্ত্রিক এবং অসাংবিধানিক আখ্যা দিয়ে মঙ্গলবার দুপুর ১২টা থেকে ধরনায় বসার ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেই ঘোষণা মতো কাজও করেন তিনি। তবে সময়ের আগে দুপুর ১১টা ৩৫ নাগাদই তিনি গান্ধী মূর্তির পাদদেশে গিয়ে উপস্থিত হন।

সেনাবাহিনীর সুত্র অনুযায়ী, মুখ্যমন্ত্রীর এই ধরনার অনুমতি দেওয়া হয়নি ফোর্ট উইলিয়ামের পক্ষ থেকে। সেনা সুত্র অনুযায়ী, মঙ্গলবার সকাল ৯টা ৪০ নাগাদ ইমেল মারফত এই কর্মসূচির অনুমতি চাওয়া হয় তৃণমূলের পক্ষ থেকে। কিন্তু এত তাড়াহুড়ো করে কর্মসূচির অনুমতি দেওয়া সম্ভব না বলে জানিয়েছে ফোর্ট উইলিয়াম। এখন দেখার বিষয় সেনার তরফ থেকে এই নিয়ে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয় কি না।

তবে শুধু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধেই না, এবার বিজেপি নেতা রাহুল সিনহার বিরুদ্ধেও কড়া অ্যাকশন নিল নির্বাচন কমিশন। হাবরার বিজেপি প্রার্থী তথা বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহার বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিয়ে তাঁকে ৪৮ ঘণ্টা প্রচার করা থেকে বিরত রাখল নির্বাচন কমিশন। তিনি আগামী ৪৮ ঘণ্টা প্রচার সহ কোনও বিবৃতিও দিতে পারবেন না।