Press "Enter" to skip to content

গুলির জবাব বোমা দিয়ে দেওয়া হবে! ১ ইঞ্চি জমি ছাড়া হবে না, ইঙ্গিত ভারত সরকারের


চীনকে শিক্ষা দেওয়ার জন্য সরকার পুরো কূটনৈতিক ও সামরিক প্ল্যান বানিয়ে ফেলেছে। জিনপিং সরকার ভারতকে ১৯৬২ সালের ভেবে সিকিম ও লাদাখ সীমান্তে দাদাগিরি করার প্রয়াস করেছিল। তবে ের এই প্রচেষ্টাকে ের বাহাদুর সেনা জওয়ানরা ব্যার্থগুলির জবাব বোমা দিয়ে দেওয়া হবে! ১ ইঞ্চি জমি ছাড়া হবে না, ইঙ্গিত সরকারের করে দিয়েছে।

জানিয়ে দি, ভারতের মোদী সরকার স্বদেশী যুগের স্মৃতি তাজা করে দেশবাসীকে আত্মনির্ভর হওয়ার ডাক দিয়েছে। এক সময় বাংলা সহ পুরো ভারতব্যাপীকে স্বদেশী ডাক জাগ্রত করেছিল সেই স্বদেশী ডাক আবার মোদী সরকার ‘আত্মনির্ভর ভারত’ নামে লঞ্চ করে দিয়েছে।

এতে কোনো দেশের ক্ষতি হোক বা না হোক চীনের ক্ষতি অবশ্যই হবে। কারণ চীন ভারতে তাদের প্রোডাক্ট বিক্রি করে প্রচুর টাকা অর্জন করে। ভারতীয়রা আত্মনির্ভর হলে চীনের ব্যবসা পুরোপুরি বন্ধ হবে। অন্যদিকে করোনা ভাইরাস ও হংকং ইস্যুতেও চীন সরকার কোণঠাসা হয়ে রয়েছে

সমস্তকিছু থেকে মানুষের দৃষ্টি ঘোরাতে চীন ভারতের সীমান্তে উপদ্রব শুরু করেছিল। সূত্রের খবর অনুযায়ী, চীন লাদাখ সীমান্তে প্রায় ৭০০০ সেনা মোতায়েন করেছে। তবে চীনের উপদ্রব শুরু হতেই ভারত সরকার ভারী সংখ্যায় সেনা জওয়ান ও যুদ্ধবিমান মোতায়েন করেছে।

মোদী সরকার স্পষ্ট ইঙ্গিত দিয়েছে যে ভারত ১ ইঞ্চি জমি ছাড়বে না এবং লাদাখে নির্মান কার্য বন্ধ হবে না। ভারত বুঝিয়ে দিয়েছে যে এটা ১৯৬২ সালের ভারত নয় যখন অস্ত্র সরঞ্জাম উৎপাদনের কারখানা পর্যন্ত বন্ধ রাখা হয়েছিল। যদি পরিস্থিতির অবনতি হয় তবে ১৯৬৭ সালের মতো আবারও চীনেক উচিত শিক্ষা দেওয়া হবে।