Press "Enter" to skip to content

গোরু চুরি করতে ত্রিপুরা সীমান্ত দিয়ে ঢুকেছিল ভারতে, এক বাংলাদেশিকে পিটিয়ে মারল জনতা

আগরতলাঃত্রিপুরায় () এক সন্দেহভাজন গরু চোরকে এলাকাবাসীরা পিটিয়ে হত্যা করেছে। মৃত ব্যক্তি বাংলাদেশের () বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। এই ঘটনা ত্রিপুরার সিপাহীজলার সোনামুড়ার কমলানগর গ্রামে ঘটেছে। এই এলাকা বাংলাদেশের সীমান্ত লাগোয়া। শনিবার ঘটে যাওয়া এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, শুক্রবার তিনজন াচালানকারী সীমান্ত পার করে বাংলাদেশ থেকে ভারতে () ঢুকেছিল। এরা সবাই কমলানগর গ্রামে লিটন পালের বাড়ি থেকে গরু চুরি করার উদ্দেশ্যে গিয়েছিল। সেই সময় লিটন টের পেয়ে প্রতিবেশীদের সাহায্যে চোরদের ধরার প্রচেষ্টা চালায়। দুজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও একজনকে গ্রামবাসীরা ঘিরে ফেলে। এরপর বেধড়ক মারে সন্দেহভাজন চোরের মৃত্যু হয়।

পুলিশ মৃত ব্যক্তির কাছ থেকে বাংলাদেশি মুদ্রা আর মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশি গরু চোরেরা কমলানগরের বাসিন্দা মানিক পালের উপর হামলা করেছিল। এরপর মানিক পাল আহত হয়ে পড়েন। তাঁকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আগরতলার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। গোরু চোরেরা বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলার বাসিন্দা বলে জানা যাচ্ছে। পুলিশের মৃত ব্যক্তির পকেট থেকে বাংলাদেশের টাকা আর মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে।

উল্লেখ্য, শুধু ত্রিপুরাই না ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে বিভিন্ন যায়গা থেকেই বারবার অনুপ্রবেশ এবং চোরাচালানের অভি ওঠে। অনেক সময় সীমান্ত রক্ষাবাহিনীর সঙ্গে তাঁরা সংঘর্ষেও জড়িয়ে পড়ে। BSF-র গুলিতে অনেক চোরাচালানকারী প্রাণও হারায়। তবুও তাঁরা প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে এদেশে বারবার অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেই থাকে।