Press "Enter" to skip to content

গ্রামে ঢুকলেই মেরে ফেলা হবে! বীরভূমে মুসলিম যুবতীকে বিয়ে করায় হুমকি হিন্দু যুবকের পরিবারকে


নলহাটিঃঅন্য ধর্মের মেয়েকে বিয়ে করায় শ্বশুরবাড়ির লোকের তাণ্ডবে বাড়িঘর ছেড়ে এদিক-ওদিক ঘুরে বেরাতে হচ্ছে তরুণকে। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের নলহাটি থানার শ্রীপুর গ্রামে। সেখানে সুজন মাল নামের এক যুবক গ্রামেরই যুবতী রিজিয়া খাতুনকে ভালোবেসে বেয়ে করে। এরপর থেকেই সুজনকে প্রাণে মারার হুমকি দিয়ে আসছে রিজিয়ার পরিবার।

সুজনের পরিবার জানায়, গতমাসের ২৫ জুন বিয়ে হয়েছিল সুজন আর রিজিয়ার। দুজনের সম্মতিতেই এই কাজ সম্পন্ন হয়েছে। আর এই রিজিয়ার পরিবারের লোকেরা জানার পর থেকেই তাঁদের প্রাণে মারার হুমকি দিয়ে আসছে। প্রাণ বাঁচাতে তাঁরা গ্রামছাড়া হয়েছে।

সুজনের পরিবার জানায়, গ্রামে ফিরলেই তাঁদের প্রাণে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়েছে রিজিয়ার পরিবারের তরফ থেকে। প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করেও কোনও কাজ হয়নি বলে জানায় সুজনের পরিবার। অন্যদিকে, নববধূ রিজিয়া জানায়, আমি স্বইচ্ছায় ধর্ম ছেড়ে সুজনকে বিয়ে করেছি। এরপর থেকেই আমার পরিবারের লোকেরা প্রাণে মারার হুমকি দিয়ে আসছে।

রিজিয়া জানায়, ওঁরা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে যে, গ্রামে ঢোকা যাবে না। গ্রামে ঢুকলেই শেষ করে দেওয়া হবে। আমরা ে অভিযোগ করলেও আমাদের কোনও সহয়তা করা হয়নি। সুজনের পরিবার জানিয়েছে যে, আমরা সাহায্যের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছেও চিঠি পাঠিয়েছি। এখনও সেই চিঠির কোনও উত্তর আসেনি।