Press "Enter" to skip to content

বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট: 2019 বা 2024 নয় মোদীজি ভারতে ২০২৯ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী থাকবেন।

দেশের মাত্র কিছু গুটি কয়েক আঞ্চলিক নির্বাচনে বিজেপি হারের পরে ২০১৯ এ বিজেপির জিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করে দিয়েছে বিরোধীরা। তারা মনে করেন যে ২০১৯ থেকে বিজেপির পতন শুরু হবে। কংগ্রেস ও অখিলেশের মত পার্টির নেতা মন্ত্রীরা এখন থেকেই দিবাস্বপ্ন দেখতে শুরু করে দিয়েছে। অন্য দিকে আর এক পার্টি পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল কংগ্রেস তারা তো এখনি ধরে নিয়েছে যে তাদের দলনেত্রী মমতা ব্যানার্জি ই হবেন দেশের পরবর্তী প্রধান মন্ত্রী। কিন্ত এখন আপনাদের আমরা যে তথ্যটি দেব সেটা শুনলে বিরোধীদের রাতের ঘুম উড়ে যাবে।

একটা বিখ্যাত ফাইনান্সিয়াল সফটয়ার ডেটা তারা কিছু বিখ্যাত দেশ নিয়ে একটি সার্ভে চালিয়েছে সেখানে তাদের মূল উদ্দেশ্য ছিল সেই সব দেশের রাষ্ট্রপ্রমুখরা তাদের শাসনকাল কত দিন অব্দি ধরে রাখতে পারবেন সেটা জানা।। আপনাদের জেনে রাখা ভালো এই সমীক্ষা মুলত উন্নতিশীল দেশ যেমন- আমেরিকা, জাপান, রাশিয়া, ভারত ও সৌদি আরবের এর মতো দেশ গুলি নিয়ে করা হয়েছিল।।
অর্থাৎ আমাদের দেশের প্রধান মন্ত্রী মাননীয় শ্রী নরেন্দ্র মোদী মহাশয় এর নাম এই কম্পানির সমীক্ষা তে বিশেষ জায়গা পেয়েছে।।
এই কম্পানি অনেক পরিক্ষা নিরীক্ষা করার পর তাদের সমীক্ষায় নরেন্দ্র মোদী কে নিয়ে যে তথ্য প্রকাশ করেছেন সেটা সকল দেশবাসী কে অবাক করার জন্য যথেষ্ট

। এই সমীক্ষায় বলা হয়েছে যে ভারতবর্ষের প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর জনপ্রিয়তা দেশবাসীর কাছে দিন দিন বেড়েয় চলেছে যত দিন যাচ্ছে সমস্ত ভারতবাসীর প্রধান মন্ত্রীর উপর ভরসা তত বাড়ছে।। তারা যেন প্রধান মন্ত্রী হিসাবে এক অমূল্য সম্পদ পেয়েছে। তাদের কাছে প্রধান মন্ত্রী নিয়ে কোনো রকম আক্ষেপ নেয়।
কম্পানির বিচারে জানা গেছে যে নরেন্দ্র মোদী হল ভারতবর্ষের সব চেয়ে জনপ্রিয় নেতা।। তাই শুধু ২০১৯ নয় ২০২৯ এর আগে তাকে কোনো পার্টি হারাতে পারবে না।[sg_popup id=”1" event=”onload”][/[/sg_popup]p>

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.