Press "Enter" to skip to content

চাবুক চালালেন ভেঙ্কাইয়া নাইডু ! সাসপেন্ড করা হল তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন সহ ৮ জনকে

রবিবার দিন রাজ্যসভায় যা হয়েছিল তা নিয়ে দেশ রাজনৈতিক চর্চ তুঙ্গে ছিল। কৃষি বিলের বিরোধিতার নামে রাজ্যসভায় উপদ্রব হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছিল। অন্যদিকে বিরোধিরা অভিযোগ তুলেছিল যে গণতন্ত্রের হত্যা হচ্ছে তথা তাদের আওয়াজকে দমিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। সদনে এমন গণ্ডগোলের পর সভাপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু ৮ জন সাংসদকে সাসপেন্ড করেছেন।

ভেঙ্কাইয়া নাইডু রবিবার দিনের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। ভেঙ্কাইয়া নাইডু বিষয়টির উপর দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, দিনটি রাজ্যসভার জন্য সবথেকে খারাপ দিন ছিল। মাইক ভেঙে যাওয়া, রুলবুক ফেলে দেওয়া ইত্যাদি ঘটনায় আমি খুবই দুঃখিত। যে ৮ জনকে সাসপেন্ড করা হয়েছে তাদের মধ্যে সঞ্জয় সিং, রিপুন বোরা, নাজির হুসেন, কে কে রাগেশ, এ করিম, রাজীব সাতভ, দোলা সেন, ডেরেক ও’ব্রায়েন রয়েছেন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

জানিয়ে দি, কৃষি বিলের বিরুদ্ধে রাজ্যসভায় AAP ও তৃণমূলের সাংসদরা বিরোধিতা করার নামে স্পিকারের সাথে খারাপ আচরণ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। যা নিয়ে বিজেপির তরফ থেকেও অভিযোগ করা হয়েছে। বিলের অনুলিপি ছিঁড়ে ফেলা, স্পিকারকে অমান্য করার মতো বিষয়গুলি নিয়ে অভিযোগ উঠেছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে ভেঙ্কাইয়া নাইডু ৮ জন সাংসদকে সাসপেন্ড করেছেন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

 

প্রসঙ্গত,কৃষি বিল ইস্যুতে দেশে নতুন বিতর্ক তৈরি হয়েছে। কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে কংগ্রেস সহ বেশকিছু দল ব্যাপক মুখর হয়েছে। কৃষি বিলের বিরোধিতা করে অকালি দলের নেতা হারসিমরাত কৌর মোদী সরকারের ক্যাবিনেট থেকে ইস্তফা দিয়েছে। অন্যদিকে কংগ্রেস এই বিলকে কৃষক বিরোধী আখ্যা দিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে পড়েছে। প্রধানমন্ত্রী মোদী বিলের প্রসঙ্গ টেনে বলেছেন অনেকে কৃষকদের ভ্রমিত করার চেষ্টা করছে। তৃণমূল কংগ্রেসের সাথেও এই বিল নিয়ে কেন্দ্রের সংঘর্ষ দেখা যাচ্ছে।