Press "Enter" to skip to content

চিনের মাটিতে লাদাখ নিয়ে চিনের সেনার মুখোমুখি হচ্ছে ভারত

নয়া দিল্লীঃ  () আর ের () সেনার মধ্যে () নিয়ে গত একমাস ধরে বিবাদ লেগেই আছে। আর আগামী কাল সেই বিবাদ নিয়ে দুই পক্ষের সেনা আধিকারিকদের মধ্যে বৈঠক হতে চলেছে। ভারতীয় সেনার সুত্র অনুযায়ী, এই বৈঠক শনিবার সকালে চিনের মোল্ডোতে হবে।

লেহ এর ১৪ কর্প্স এর জেনারেল অফিসার কম্যান্ডিং, লেফটেন্যান্ট জেনারেল হরিন্দর সিং এই বৈঠকে ভারতের নেতৃত্ব করবে। চিনের তরফ থেকে এই বৈঠকে মেজর জেনারেল লিয়ু লিন অংশ নেবেন। লিন চিনের পিপলস লিবারেশ আর্মির দক্ষিণ শিনজিয়াং এর সেনা কম্যান্ডার।

দুই পক্ষের মধ্যে এর আগে স্থানীয় কম্যান্ডারদের মধ্যে এখনো পর্যন্ত কমপক্ষে ১০ টি এবং জেনারেল স্তরীয় আধিয়াক্রিকদের মধ্যে তিনটি বৈঠক হয়ে গেছে। এরপরেও এই বৈঠকে কোন সমস্যার সমাধান হয়নি।

আশা করা যাচ্ছে যে, এই বৈঠকে দুই পক্ষই প্যাংইয়াং শো আর গালওয়ান ঘাঁটিতে শান্তি বহাল রাখার দিকে জোর দেবে। ভারতীয় প্রতিনিধি মণ্ডল এপ্রিল ২০১৮ সালে বুহানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আর চিনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং এর মধ্যে বিধিবহির্ভুত শিখর সন্মেলনে নেওয়া নির্ণয়ের অনুরুপ, দুই সেনা দ্বারা জারি রাজনৈতিক দিশা-নির্দেশকে কার্যকর করতে জোর দেবে।

শোনা যাচ্ছে যে, দুই পক্ষই গতিরোধ দূর করার জন্য রাজনৈতিক স্তরে প্রয়াস চালাচ্ছে। ২০১৭ এর ডোকালাম গতিরোধের পর এটাই দুই পক্ষের মধ্যে সবথেকে বড় গতিরোধ। গত মাসে বিবাদ শুরু হওয়ার পর ভারতীয় সৈন্য নেতৃত্ব সিদ্ধান্ত নিয়েছিল যে, ভারতীয় সেনা প্যাংইয়াং লেক, গালওয়ান ঘাঁটি, ডেমচোউক আর দোউলত বেগ সমেত সমস্ত বিতর্কিত অঞ্চলে চিনের সেনার আক্রমনাত্বক রুপের মোকাবিলার জন্য সমস্ত রুপে তৈরি থাকবে।

আপনাদের জানিয়ে দিই, চিন লাদাখে ভারতের তরফ থেকে একটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক নির্মাণ নিয়ে আপত্তি জাহির করেছিল। পাঁচ মে প্রায় ২৫০ চিনের সেনার সাথে ভারতীয় সেনার সংঘর্ষ বেঁধেছিল। আর এরপর থেকেই দুই দেশের মধ্যে এই বিবাদ আরও বাড়তে থাকে।