Press "Enter" to skip to content

চীনকে শিক্ষা দিতে কড়া পদক্ষেপ ভারতের, বিপাকে পড়বে লক্ষ লক্ষ চীনা নাগরিক

নয়া দিল্লিঃ সীমান্তে চলা উত্তেজনার মধ্যে ভারত (India) বড় একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ভারত এবার চীনের নাগরিকদের ইলেক্ট্রনিক্স ট্যুরিস্ট ভিসা (E-Visa) না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। চীন ছাড়াও কানাডা, ব্রিটেন, ইরান, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া আর ের নাগরিকদের ক্ষেত্রেও ভারত ই-ভিসা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যদিও তাইওয়ান, ভিয়েতনাম, সিঙ্গাপুর আর আমেরিকা সহ ১৫২ দেশের নাগরিকরা সহজেই ই-ভিসা পাবেন।

রিপোর্ট অনুযায়ী, এর আগে ভারত ১৭১ দেশের নাগরিকদের ই-ভিসার সুবিধা দিয়েছিল। শোনা যাচ্ছে যে, পিপলস লিবারেশন আর্মির সঙ্গে চলা উত্তেজনার কারণেই ভারত এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গত ১ মাসে লাদাখ ছাড়া আর উত্তরাখণ্ডেও চীন আর ভারতীয় মুখোমুখি হয়েছে।

বলে দিই, ২০১৫-১৬ সালে চীনের পর্যটকদের জন্য প্রায়র রেফা ক্যাটাগরির (PRC) নিয়মে ছাড় দিয়েছিল ভারত এবং চীনকে ই-ভিসা উপলব্ধ করা দেশের মধ্যে শামিল করা হয়েছিল। চীন, আফগানিস্তান, পাকিস্তান, , ছাড়াও পাকিস্তানি বংশোদ্ভূতরা PRC-র আওতায় পড়ে। যদিও, ২০২০ সালের মার্চ মাসে করোনার কারণে যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞা থাকায় ই-ভিসা বন্ধ করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, আগস্ট ২০২০ সালে ভারত সরকার আন্তর্জাতিক যাত্রার নিয়মে ছাড় দিয়েছিল এবং আমেরিকা, ব্রিটেন, আর ফ্রান্সের নাগরিকদের এয়ার বাবল নিয়মে ভারতে আসার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। এর দুই মাস পরে, ইলেকট্রনিক, ট্যুরিস্ট এবং মেডিকেল বিভাগ ব্যতীত সমস্ত ভিসার জন্য বিধিনিষেধ আরও শিথিল করা হয়েছিল।

বলাই বাহুল্য যে, ভারতের এই সিদ্ধান্তের ফলে লক্ষ লক্ষ চীনা ট্যুরিস্টের সমস্যা বাড়বে। এতদিন তাঁরা সহজেই ভারতের ভিসা পেয়ে ভারত ভ্রমণে আসত। কিন্তু সীমান্তে তাঁদের দেশ দ্বারা বেড়ে চলা আক্রমণাত্বক মনোভাবের ফলে এখন দুই দেশের সম্পর্ক খারাপ হচ্ছে, যার জেরে ভারত এমন কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হচ্ছে।