চীনের মুখের উপরে না বলে দিলো মোদী সরকার!! সাংহাই সম্মেলনে ‘ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড’ প্রকল্পে চীনকে অনুমতি দিলো না ভারত।

কেন্দ্রে বিজেপি আসার পর ভারত একটা শক্তিশালী ও প্রতিভাবান নেতা পেয়েছে এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। আর সেই কারণেই ভারত বর্তমানে বিশ্বের সবথেকে বিকশিত দেশগুলির তালিকায় আসতে শুরু করেছে। আপনাদের জানিয়ে রাখি এখন চীন ও ভারতের সম্পর্ক একটা নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে যে কারণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ‘সাংহাই সহযোগিতা সংগঠন’ এর বৈঠকে উপস্থিত হয়েছিলেন। এই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে চীন রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং এর দুটি বানিজ্যিক চুক্তি হয় যেখানে দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক সহযোগিতার কথা বলা হয়। তবে এই বৈঠকে চীনের আসল উদেশ্য ছিল যেভাবে হোক ভারতের থেকে ‘ ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড’ করার অনুমতি নেওয়া।

আসলে, চীন ‘ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড’ প্রকল্পের মাধমে দক্ষিণপূর্ব এশিয়া , আফ্রিকা, ইউরোপকে যুক্ত করতে চাইছে চীন অনান্য দেশের থেকে অনুমতি নিয়ে কাজ শুরু করলেও ভারতের থেকে অনুমতি পাচ্ছে না। আর এই অনুমতি পাওয়াই ছিল চীনের আসল লক্ষ। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী চীনকে জানিয়েছে কোনোমতেই এই অনুমতি দেওয়া হবে না। কারণ চীন পাকিস্থান অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতের অনুমতি ছাড়াই কিছু প্রজেক্ট চালাচ্ছে। আর পাক অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ। তাই চীন যতদিন না অবধি সমস্থ কাজ বন্ধ করছে ততদিন ভারত তার সার্বভৌমতত্বের ক্ষতি করে কোনো ক্রমেই চীনকে এই অনুমতি দেওয়া হবে না।

প্রধানমন্ত্রী মোদীর এই পদক্ষেপ যে চীনের জন্য একটা বড়ো ঝটকা তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।যেখানে কংগ্রেস আমলে সরকার চীনকে সব সুযোগসুবিধা দিয়ে দিত সেখানে মোদী সরকার আসার পর চীনের উপর এমন বড়ো চাপ এক বড়ো দৃষ্টান্ত।[sg_popup id=”1" event=”onload”][/[/sg_popup]p>

Leave a Reply

you're currently offline

Open

Close