Press "Enter" to skip to content

জম্মু-কাশ্মীরে সরকারের এই পদক্ষেপ সম্পর্কে জানলে মোদী সরকারের উপর আপনাদের শ্রদ্ধা আরো বেড়ে যাবে।

বিজেপি তাদের এবং শত্রুদের সাথে একটা বিষয় সমসময় পরিষ্কার করে রেখেছে সেটা হলো দেশের সুরক্ষার ব্যাপারে বা কারোর সাথে কোনো সোমঝোত করা হবে না।

সরকার তাদের সেই নীতি বজায় রেখে আরো এক বড়ো পদক্ষেপ নিয়েছে যা জানার পর আপনারাও খুশি হবেন।

আসলে জম্মু-কাশ্মীরের মেহবুবা মুফতির সরকার প্রস্তাব দিয়েছিল আসন্ন পবিত্র মাসগুলিতে সিজফায়ার করার জন্য। অর্থাৎ মেহবুবা মুফতির সরকার প্রস্তাব রেখেছিল যে রমজান মাসগুলিতে ভারতীয় সেনা জঙ্গিরদের সাথে যুদ্ধবিরতি রাখে।

কিন্তু কেন্দ্র সরকার মেহবুবা মুফতির এই প্রস্তাব প্রত্যাখান করেছে। আপনাদের জানিয়ে রাখি এটা সেই মেহবুবা মুফতির সরকার যে সরকার কাশ্মীরের পাথরবাজদের সমর্থন করে।

মেহবুবা মুফতির সরকার জানিয়েছিল সেনা জদিবেই সময় যুদ্ধবিরতি রাখে তাহলে কাশ্মীরে শান্তি বজায় থাকবে। জানলে অবাক হবেন মেহবুবা মুফতির দাবির সাথে ্তবের কোনো মিল নেই । কারণ মেহবুবা মুফতি প্রস্তাব রেখেছেন ে সেনা জঙ্গিদের ওপর অপা বন্ধ রাখলে শান্তি বজায় থাকবে কিন্তু আসলে এই মাসগুলিতেই জঙ্গিরা খুবই সক্রিয়ভাবে কাজ করে এবং পবিত্র রমজান মাসের সময় অসামাজিক পরিস্থিতির সৃষ্টি করে।

সেনা প্রধান বিপিন রাওয়াত জানিয়েছেন সেনা তাদের কাজ করেই যাবে। তিনি বলেছেন, সেনা রমজান বা ঈদ দেখে কোনো কাজ করে না। আর জঙ্গিদের কোনোরকম ছাড় দেওয়া হবে না ঈদ বা পবিত্র রমজান মাসে। জঙ্গিরা যদি মৃত্যু থেকেও বাঁচতে চাই তাহলে তারা আত্মসমর্পন করুক নাহলে সেনা যেভাবে জঙ্গিসাফাই এর কাজ করছে তা চালিয়ে যাবে।

 

িদের সমর্থনকারী মেহবুবা মুফতির বোঝা উচিত যে জঙ্গিরা কখনো শান্তির রাস্তায় যেতে পারে না এবং তাদের আক্রমণের কোনো নিদিষ্ট সময় হয় না। তাই মেহবুবা মুফতি বোঝা উচিত উনার প্রস্তাব সম্পূর্ণ যুক্তিহীন।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.