Press "Enter" to skip to content

জাকির নায়েকের সমর্থনে কংগ্রেসে!! কট্টরপন্থী ইসলামিক প্রচারক জাকির নায়েকের সমর্থনে কংগ্রেস যা বললো জানলে আপনিও রেগে যাবেন।

কট্টরপন্থী ইসলামিক প্রচারক জাকির নায়েককে নিয়ে গতকাল থেকে বিতর্ক শুরু হয়েছে। আসলে ভারত সরকার জাকির নায়েককে গ্রেপ্তার করে ভারতে আনতে চাইছে। কিন্তু এই সময় কংগ্রেসের বড় সালমান খুরেসি জাকির নায়েকের সমর্থনে এগিয়ে এসেছে। কট্টরপন্থী জাকির নায়েকে গ্রেপ্তার করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে এই খবর সামনে আসার সাথে সাথে কংগ্রেসের ব্যাথা দ্বিগুণ হয়েগেছে।

কংগ্রেসের বড় নেতা সালমান খুরেসি দাবি তুলে বলেছে, ‘জাকির নায়েক সম্পূর্নভাবে নির্দোষ যার উপর কোনো কেস দেওয়া যায় না তাকে বিনাকারণে জ্বালাতন করা হচ্ছে।’ আপনাদের জানিয়ে রাখি এটা সেই সালমান খুরেসি যে বাটলা হাউস এনকাউন্টার এর সময় কেঁদে ভাসিয়ে দিয়েছিল এবং একসময় এই সালমান খুরেসি বিদেশ মন্ত্রীর পদেও ছিলেন। উল্ল্যেখ কংগ্রেস আমলে জাকির নায়েক ফুলে ফেঁপে উঠেছিল এবং বহু মানুষের মনে সন্ত্রাসবাদের বীজ বোনার কাজ করেছিল। কংগ্রেসের বড় বড় নেতারা তো জাকির নায়েকে শান্তি দূত বলেও দাবি করেছিল। এছাড়া জাকির নায়েকের সাথে সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধীর সাথেও সরাসরি ভালো সম্পর্ক ছিল। সোনিয়া ও রাহুলের ট্রাস্ট রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন এ ৫০ লক্ষ টাকার ডোনেশন দেওয়ারও ব্যাপারে সামনে এসেছে। এখন জাকির নায়েক জানিয়েছে যে মোদী সরকার যতদিন ভারতে থাকবে ততদিন সে ভারতে আসবে না, কংগ্রেসে সরকার এলে তবেই সে ভারতে ফিরবে। এর মধ্যে সালমান খুরেশিও সাফ জানিয়ে দিলেন, ‘আমাদের সরকার এলে জাকির নায়েক ফিরে আসবে, কারণ সে সম্পূর্ন নির্দোষ।’

আপনাদের জানিয়ে রাখি ঢাকায় আতঙ্কবাদীরা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ছিল তারা জাকির নায়েকের ভাষণ থেকে প্রভাবিত হয়েছিল। বহু জঙ্গি ও ইসলামিক কট্টরপন্থীরাও জাকির নায়েকের থেকে প্রভাবিত হয়ে জিহাদের দিকে আকর্ষিত হয়েছিল। এমনকি অন্য মানুষের মধ্যে অন্য ধর্মের প্রতি ঘৃণা ও হিংসাত্মক কথা বলারও অভিযোগ রয়েছে জাকির নায়েকের উপর।

you're currently offline