Press "Enter" to skip to content

জাভেদ আখতারকে হাইভোল্টেজ ঝটকা দিলেন কঙ্গনা রানাউত! ঠুকলেন পাল্টা মানহানি মামলা

গীতিকার ও লেখক বলিউড অভিনেত্রী ের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করেছেন। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) আন্ধেরি ে এই বিষয়ে শুনানি হয়েছে, যেখানে কঙ্গনা রানাউতকে হাজির হতে হয়েছিল। আদালতে হাজির হওয়ার পর, অভিনেত্রী এ বিষয়ে তার প্রতিক্রিয়া তুলে ধরেছেন। কঙ্গনা রানাউত অভি করেছেন, যে শিবসেনার চাপে জাভেদ আখতার তাঁর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছেন।

জাভেদ আখতারের উপর পাল্টা মানহানি মামলা

এখন কঙ্গনা রানাউত লেখক জাভেদ আখতারের উপর কাউন্টার পিটিশন দায়ের করেছেন। অভিনেত্রী জাভেদ আখতারের উপর পাল্টা মানহানি মামলা দায়ের করেছেন। একই সাথে কঙ্গনা কেস ট্রান্সফারের পিটিশনও দায়ের করেছেন।

রানাউত জাভেদ আখতারের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ধারা ৩৮৩, ৩৮৪ (জুলুমবাজি),৩৮৭ ,৫০৩ এবং ৫০৬ (অপরাধমূলক ভয় দেখানো) আওতায় পিটিশন দায়ের করেছেন। কঙ্গনা রানাউত সোশ্যাল মিডিয়ায় জোরালো প্রতিক্রিয়া তুলে ধরেছেন। তিনি মানহানির মামলা সম্পর্কে তাঁর অফিসিয়াল Koo অ্যাপ অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

ছবি শেয়ার করে অভিনেত্রী পোস্টে লিখেছেন, `আমার বিরুদ্ধে মানহানি মামলার শুনানি আজ ছিল, যা শিবসেনার চাপে জাভেদ আখতার দায়ের করেছেন।” নিজের ছবি শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, এই স্টাইলে হায়েনা বাহিনীর মুখোমুখি হওয়ায় একমাত্র যোদ্ধার কাজ।’

এই মামলার শুনানির জন্য অভিনেত্রী সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর আন্ধেরি আদালতে হাজির হন। তিনি বলেছেন, যে অন্ধেরীর মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ওপর “বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেছেন”।মিসেস রানাউতের আইনজীবী আদালতকে মামলাটি স্থানান্তরের অনুরোধ জানিয়েছেন। রানাউতের আইনজীবী, রিজওয়ান সিদ্দিকী মি. জানিয়েছেন, কঙ্গনা এবং রঙ্গোলিকে জাভেদ আখতারের বাড়িতে ডাকা হয়েছিল।

জাভেদ আখতার তাদের সঙ্গে ঠিকানা শেয়ার করেনি বরং তিনি তখন ফোনে তাদের হুমকি দিয়েছিলেন। এটি আজকের ঘটনা নয়, তিন বা চার বছর আগের ঘটনা। তিনি একথাও বলেছেন, এখন অভিনেত্রী তাঁর অভিযোগ লিপিবদ্ধ করেছে কিন্তু এখন জাভেদ আখতার বলছেন যে এই বিষয়ের সাথে তার কোন সম্পর্ক নেই (কথিত মানহানির বিষয়), সে কেন কঙ্গনাকে ফোন করতে যাবে এর পেছনে উপযুক্ত কারণ নেই।