Press "Enter" to skip to content

জামিনে মুক্ত সুব্রত, ফিরহাদ, মদন, শোভন! রায় এল আদালতের



নারদ কাণ্ডে সোমবার সকালে সিবিআইয়ের হাতে চার নেতারই জামিন মঞ্জুর করল সিবিআই-এর বিশেষ । করোনার কথা মাথায় রেখে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে ব্যাঙ্কশাল আদালতে এই শুনানি চলে। আদালতে অভিযুক্তদের হয়ে সওয়াল করেন তথা আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আদালতে প্রশ্ন করে বলেন, এদের গ্রেফতার করা হলে এবং মুকুল রায়কে কেন গ্রেফতার করা হল না।

আদালতে ধৃত চার নেতারই জামিনের আবেদন করেন তৃণমূল সাংসদ তথা আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। সিবিআইয়ের আইনজীবী এই আবেদনের বিরোধিতা করেন। সিবিআইয়ের আইনজীবী যুক্তি দেখিয়ে বলেন, অভিযুক্তরা বাইরে গেলে প্রমাণ নষ্ট করে দিতে পারে। সিবিআইয়ের আইনজীবীর পাল্টা যুক্তি দেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, বর্তমানে করোনার সমস্যর সম্মুখীন কলকাতা। আর সৌভাগ্যক্রমে কলকাতা পুরসভার প্রশাসক হলেন ফিরহাদ হাকিম। তাই এই সময় ওনাকে খুব দরকার।

এছাড়াও বিধানসভার স্পিকারের অনুমতি ছাড়াই বিধায়কদের গ্রেফতার করা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। পরিস্থিতিতে গ্রেফতারী নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের কথাও স্মরণ করিয়ে দেন তিনি।