Press "Enter" to skip to content

জেহাদি তালিবানের রাতের ঘুম কেড়েছে সালিমা, তৈরি করেছেন নিজের সেনা

[ad_1]

নয়া দিল্লীঃ তালিবান (Taliban) জঙ্গিরা আফগানিস্তানে (Afghanistan) তুমুল তাণ্ডব করছে। একের পর এক শহর-গ্রাম দখল করে নিয়েছে তাঁরা। পাশাপাশি নিরীহ মানুষদের হত্যা সহ মহিলাদের বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে যৌনদাসী বানাচ্ছে জঙ্গিরা। আর এরই মধ্যে তালিবানদের রোখার জন্য একজন মহিলা গভর্নর বন্দুক তুলে নিয়েছেন নিজের হাতে। আফগানিস্তানে হত্যালীলা চালানো তালিবান জঙ্গিদের শিক্ষা দিতে সালিমা মাজারি (Salima mazari) নিজের সেনা গড়েছেন। আফগানিস্তানের নিরীহ মানুষরা নিজের গবাদি পশু আর জমি বিক্রি করে হাতিয়ার কিনে সালিমার সেনায় যুক্ত হচ্ছে।

আফগানিস্তানের চারকিন্ত জেলার মহিলা গভর্নর হলেন সালিমা মাজারি। আর এখন তাঁর ভয়েই কাঁপছে তালিবানিরা। প্রতিদিনই সালিমা নিজের সেনাকে শক্তিশালী করে তুলছেন, যার কারণে তালিবানদের রাতের ঘুম উড়ে গিয়েছে। পুরুষ প্রধান আফগানিস্তানের একজন মহিলা গভর্নর তালিবানের সঙ্গে লড়াই করার জন্য পুরুষদের সেনা তৈরি করছে। গাড়ি করে আফগানিস্তানের গ্রামে গঞ্জে পৌঁছে সালিমা শান্তিপ্রিয় মানুষদের নিজের সেনায় যুক্ত করে তালিবানের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করার সংকল্প নিয়েছেন।

ওনার গাড়ির হুডে একটি লাউডস্পিকার বাধা হয়েছে, যাতে একটি জনপ্রিয় গান চালানো হয়। গানটি হল, ‘আমার দেশ, আমি আমার জীবন তোর জন্য কুরবান করব।” সালিমা গ্রামে গঞ্জে পৌঁছে সাধারণ মানুষকেও তাই করতে বলছে।

উল্লেখ্য, ১৯৮০ সালে একজন উদবাস্তু হিসেবে ইরানে সালিমা মাজারি জন্মগ্রহণ করেন। সেই সময় ওনার পরিবার সোভিয়েত যুদ্ধে অংশ নিয়েছিল। সালিমা ইরানে পড়াশোনা করেন। তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক হওয়ার পর তিনি পরিবার ছেড়ে আফগানিস্তান যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। ২০১৮ সালে তিনি জানতে পারেন যে, চারকিন্ত জেলায় গভর্নর পদে নিযুক্তি হচ্ছে। চারকিন্ত সালিমার পৈতৃক জেলা হওয়ার কারণে, সেখানে তিনি গভর্নর পদের জন্য আবেদন করেন।

সালিমার আবেদনে সাড়া দিয়ে তাঁকে গভর্নর পদে নিযুক্ত করে আফগান সরকার। এরপর সালিমান তালিবান জঙ্গিদের কথা মাথায় রেখে জেলাতে নিরাপত্তা কমিশনের স্থাপনা করেন। সেখানে স্থানীয় মানুষদের ভর্তি করার কাজ চলত। সালিমা নিজের কার্যকালে তালিবানি জঙ্গিদের ত্রাস বলেই পরিচিত ছিলেন। আর এখন সবকিছু খুইয়ে আবারও তালিবানিদের ঘুম কাড়তে সেনা বানাচ্ছেন তিনি।

[ad_2]