Press "Enter" to skip to content

টিকিটের জন্য ৫ লাখ চাওয়া হয়েছিল পিকের তরফ থেকে, দিতে পারিনি! বিস্ফোরক তৃণমূল নেতা

[ad_1]

উলুবেড়িয়াঃ প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর থেকে তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের ক্ষোভ মেটার নামই নিচ্ছে না। আর এবার দলের বিরুদ্ধে দশ লক্ষ টাকায় টিকিট বিক্রি করার দাবি তুললেন উলুবেড়িয়া পুরসভার প্রাক্তন পুরপ্রতিনিধির স্বামী। তিনি প্রকাশ্যে অভিযোগ করে বলেছেন যে, প্রশান্ত কিশোরের তরফ থেকে টাকার দাবি করা হয়েছিল। দিতে না পারায় টিকিট পাইনি।

উল্লেখ্য, তৃণমূলের তরফ থেকে পুরভোটের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করার পর থেকেই চারিদিকে তুমুল অশান্তির সৃষ্টি হয়েছে। সর্বপ্রথমে তৃণমূলের অফিসিয়াল পেজ থেকে প্রকাশিত করা প্রার্থী তালিকাকে ভুল বলে আখ্যা দেওয়া হয়েছে। এরপর নতুন করে যেই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে, সেটা নিয়ে দলীয় কর্মীদের মধ্যে অসন্তোষ বেড়েছে।

শুধু সাধারণ নেতা-কর্মীই নয়, শীর্ষ নেতৃত্বদের মধ্যেও এই নিয়ে অসন্তোষের সৃষ্টি হয়েছে। এমনকি প্রার্থী তালিকা নিয়ে তৃণমূল আর প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা আইপ্যাকের মধ্যেও দ্বন্দ্ব বেঁধে গিয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। অন্যদিকে মদন মিত্র সহ অনেক বড়বড় তৃণমূল নেতাই এই প্রার্থী তালিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

এদিকে, উলুবেড়িয়ায় দলের টিকিট না পেয়ে নির্দল হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন প্রাক্তন পুরপ্রতিনিধি মনোয়ারা বেগম। যদিও তিনি বলেছেন যে, নির্দল প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করে ইনি ফের তৃণমূলে ফিরে যাবেন। অন্যদিকে, মনোয়ারা বেগমের স্বামী তৃণমূল নেতা কাজী আতিবর রহমান অভিযোগ করে বলেছেন যে, তাঁর স্ত্রীকে প্রার্থী করার জন্য প্রশান্ত কিশোরের লোক তাঁর থেকে ৫ লক্ষ টাকা চেয়েছিল। তিনি সেই টাকা দিতে না পারায় অনার স্ত্রীকে প্রার্থী করা হয়নি বলে জানান কাজী আতিবর।

[ad_2]