Press "Enter" to skip to content

টুইটারে ট্রেন্ডিং হচ্ছে ‘মমতার থেকে বাংলা বাঁচাও’! করা হয়েছে ৪৪ হাজারেরও বেশি টুইট

নবান্ন চলো অভিযানকে কেন্দ্র করে যে উত্তেজনা ছড়িয়ে ছিল তা এখন বড়ো বিতর্কের রূপ নিচ্ছে। বিজেপির অভিযানের উপর পুলিশ লাঠিচার্জ করে এবং জল কামান চালায়। পুলিশ এক শিখ ব্যাক্তির পাগড়ি খুলে তাকে হেনস্থা করেছে সেই ভিডিওকে কেন্দ্র করে বিতর্ক তীব্র হয়ে উঠেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি এমন যে শিখ ধর্মাবলম্বীদের প্রতিনিধিরা পুলিশের বিরুদ্ধে একশন নেওয়ার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে অনুরোধ করেছে। একশন না হলে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করার হুমকি দিয়েছে।

অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল রাজ্যের পরিস্থিতির উপর চিন্তা ব্যাক্ত করেছেন। সোশ্যাল মিডিয়াতেও বহুজন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উপর আক্রোশ প্রকাশ করেছেন। ক্রিকেটার হরভজন সিং মমতা ব্যানার্জীকে টুইটে ট্যাগ করে শিখ ব্যাক্তিকে হেনস্থা করা নিয়ে তদন্ত করার অনুরোধ করেছেন।

অন্যদিকে টুইটারে মমতা ব্যানার্জীর বিরুদ্ধে বড়ো সংখ্যায় লোকজন টুইট করতে শুরু করেছে।
ইতিমধ্যে ‘মমতার থেকে বাংলা বাঁচাও (#ममता_से_बंगाल_बचाओ) হ্যাশট্যাগ টুইটারে ট্রেন্ড হতে শুরু হয়েছে। এই হ্যাশট্যাগ দিয়ে প্রায় ৪৪ হাজার টুইট ইতিমধ্যে করা হয়েছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

প্রত্যেক টুইটে পুলিশের বর্বরতা, মমতা সরকারের নীতি ইত্যাদি বিষয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। কিছু ইউজার ১৯৮৪ সালে শিখদের উপর হওয়া অন্যায় এর সাথে ২০২০ সালে পশ্চিমবঙ্গের এই ঘটনার প্রসঙ্গ টেনেছেন। কেউ আবার পুলিশের লাঠিচার্জে ভিডিও পোস্ট করে মমতা সরকার থেকে বাংলা বাঁচানোর হ্যাশট্যাগ দিয়ে টুইট করেছেন।