Press "Enter" to skip to content

ট্রেনে চেপে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ যাবেন অযোধ্যায়! করবেন রামমন্দিরে পূজা

কানপুরের পর এবার ট্রেনে চেপে অযোধ্যা যাবেন দেশের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ (Ram Nath Kovind)। আর এর মধ্যে দিয়েই ট্রেন ভ্রমণের ঐতিহ্যকে পুনরুজ্জীবিত করেছেন। ২৯ শে আগস্ট লখনউ থেকে অযোধ্যার জন্য একটি বিশেষ ট্রেনে চড়বেন রাষ্ট্রপতি।

অযোধ্যায় পৌঁছানোর পর রাষ্ট্রপতি রাম জন্মভূমির উদ্দেশ্যে রওনা েন এবং অস্থায়ী রাম মন্দিরে পুজো করবেন। রামনাথ কোবিন্দ ছাড়াও, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী এবং , রেলওয়ে বোর্ডের চেয়ারম্যান, উত্তর রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক এবং বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তি ১২-কোচের ট্রেনে ভ্রমণ করবেন বলে খবর।

রাষ্ট্রপতির জন্য এই বিশেষ ট্রেন, আইআরসিটিসির একটি বিশেষ ট্রেন, অত্যাধুনিক সুবিধায় সুসজ্জিত।রেলওয়ে অফিশিয়ালের মতে, প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুটটিতে দুটি সংযুক্ত বাথরুম, একটি ছোট লাউঞ্জ এবং একটি টিভি সেট রয়েছে। বাথরুমগুলি বাথটাব সহ আধুনিক সুযোগ -সুবিধা দিয়ে সজ্জিত করা হচ্ছে। রেলের তরফে জানানো হয়েছে, রাষ্ট্রপতি ২৯ আগস্ট সকাল ৯.১০ মিনিটে লখনউ থেকে অযোধ্যা রওনা হবেন।

রাষ্ট্রপতির ট্রেনটি সকাল ১১.৩০-র দিকে অযোধ্যা রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছবে এবং বিকাল ৩.৫০ মিনিটে অযোধ্যা থেকে ছাড়বে এবং সন্ধ্যা ৬.২০ মিনিটের কাছাকাছি লখনউ পৌঁছবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ট্রেন সফরকে আনন্দময় করে তোলার জন্য সবরকম প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন রেলের এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। অযোধ্যা ও লখন‌উয়ের মধ্যবর্তী সমস্ত রেল স্টেশনগুলিকে হাই অ্যালার্টে রাখা হবে। রাষ্ট্রপতি রাজভবনে থাকবেন।

বর্তমান রাষ্ট্রপতির আগে ২০০৬ সালে এপিজে আবদুল কালাম ট্রেনে ইন্ডিয়ান মিলিটারি একাডেমিতে (আইএমএ) ক্যাডেটদের পাসিং আউট প্যারেডে যোগ দিতে দিল্লি থেকে দেরাদুন গিয়েছিলেন। তবে ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি রাজেন্দ্র প্রসাদ থেকে শুরু করে, ৭০ এর দশকের শেষের দিকে প্রথম শ্রেণীর নাগরিকদের জন্য ট্রেন ভ্রমণ একটি সাধারণ ঐতিহ্য ছিল।