Press "Enter" to skip to content

তান্ত্রিক সেজে করতো হিন্দু মেয়েদের ধর্ষণ; পুলিশ গ্রেফতার করল সৈয়দ নিজামকে

পুলিশ বাদুড় জেলা থেকে গ্রুমিং সিন্ডিকেটের মাস্টারমাইন্ড সৈয়দ নিজামকে গ্রেফতার করেছে। সূত্র অনুযায়ী, উত্তর প্রদেশ পুলিশ বরেলি জেলার জগৎপুরের বাসিন্দা সৈয়দ নিজামকে গ্রেপ্তার করেছে, যে ‘তান্ত্রিকের’ ছদ্মবেশে হিন্দু মেয়েদের ে ধর্মান্তরিত করতো। সৈয়দ নিজাম ‘তন্ত্র বিদ্যা’ ব্যবহার করে হিন্দু মেয়েদের সমস্যার সমাধান করবে বলে দাবি করে তাদের বাড়ি পৌঁছে যেত। পরবর্তীকালে সে ওই তরুণীদের বাড়িতে আটকে রেখে ধর্ষণ করত এবং তাদের জোর করে ইসলামে ধর্মান্তরিত করত।

তদন্তে দেখা গিয়েছে, অভিযুক্ত এক ডজনেরও বেশি মেয়েকে হিন্দু থেকে মুসলিম ধর্মান্তরের করার কথা করেছে। উপরন্তু, সে একথাও স্বীকার করেছে যে, মিথ্যা কথা বলে এবং হুমকি দিয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের কাছ থেকে কমপক্ষে ২৫ লক্ষ টাকা লুট করেছে। নিজামের স্বীকারোক্তির ভিডিওটিও সামনে এসেছে এবং সেখানে তাকে স্বীকার করতে দেখা গিয়েছে, যে সে জোর করে যুবতীদের ইসলামে ধর্মান্তরকরণ
করেছে।

সিন্ডিকেটের মূল পরিকল্পনাকারী সৈয়দ নিজাম স্বীকার করেছে যে, তারা হিন্দু মেয়েদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করত। নিজাম ছাড়াও গ্রুমিং জিহাদ সিন্ডিকেটে আরও ১২ জন আসামি রয়েছে। অন্য আসামিরা হল সেলিম, সেলিম মাফুরিদী, সৈয়দ রজব ও অলোক। অভিযুক্তরা টাকার প্রলোভন দেখিয়ে হিন্দু মেয়েদের মুসলিম ধর্মে ধর্মান্তরিত করত। এই দলটি এখনও পর্যন্ত কমপক্ষে ১২-১৫ জন মেয়েকে ইসলামে ধর্মান্তরিত করেছে বলে জানা গিয়েছে।

পুলিশ নিজামকে গ্রেপ্তার করেছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে, এবং পুলিশ চক্রের অন্যান্য আসামীদের ধরার জন্য অভিযান শুরু করেছে।