Press "Enter" to skip to content

তালিবানদের সাথে মিলে কাশ্মীর দখল নেব আমরা’,- বললেন পাকিস্তানি নেত্রী নীলম ইরশাদ


তালিবানরা আফগানিস্তান দখল নেওয়ার পর থেকেই ্তা বেড়েছে ভারতের। কারণ নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের মনে হয়েছে, তালিবান দখলে পাকিস্তান। তালিবানদের সহায়তায় এবার কাশ্মীরে প্রভাব বিস্তার করতে চাইবে । সেই আশঙ্কাকে আরেক ধাপ উস্কে দিয়েছে পাকিস্তানের তেহরিক এ ইনসাফ সরকারের এক নেত্রী। প্রকাশ্যে তিনি বলেছেন, তালিবানদের সাহায্য নিয়ে এবার আমরা ভারত থেকে কাশ্মীরকে আলাদা করব।

ইতিমধ্যে অনেকেই দাবি করেছেন, আফগানিস্তানে তালিবান শাসন জারির পিছনে মদত রয়েছে পাকিস্তানের। তবে এ কথা পাক প্রধানমন্ত্রী স্বীকার করেনি। কিন্তু তাঁর ঘনিষ্ঠ নেত্রীর এমন মন্তব্যে পাকিস্তানের আসল চেহারা প্রকাশ পেয়েছে। তাঁর এই মন্তব্য এখন ভারাইল সোশ্যাল মিডিয়াতে।

কাশ্মীর নিয়ে ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্ক খুব একটা ভালো নয় তা সবাই জানে। সেই সংবেদনশীল জায়াগা নিয়ে ‘অন ক্যামেরা’ পাক নেত্রী‌ বলেন, পাকিস্তান অনেক ক্ষমতাশালী । সারাবিশ্ব ওয়াকিবহাল পাকিস্তানের ক্ষমতা নিয়ে। ইমরান খান বলশালী বলেই তুরস্ক, মালয়েশিয়ার সরকার, আফগানিস্তানের তালিবান সরকার আর আমাদের সমর্থন করে। তালিবান তো বলেই দিয়েছে কাশ্মীর দখলের ক্ষেত্রে আমাদের সমস্ত রকম সাহায্য করবে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

নীলম ইরশাদ শেখ আরও বলেছেন, যখন তালিবাদের উপর জুলুম হচ্ছিল তখন আমরা সাহায্য করেছিলাম। এখন আমাদের সঙ্গে জুলুম হচ্ছে, বদলে সাহায্য করবে তালিবান। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ক্ষমতা দখলের পরে সাংবাদিক সম্মেলন করে তালিবান প্রধান জানিয়েছিলেন কাশ্মীর ভারতের, দ্বিপাক্ষিক ও আভ্যন্তরীণ ইস্যু। এই বিষয়ে তারা হস্তক্ষেপ করব না। কিন্তু পাক নেত্রীর এই মন্তব্যের পর প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে তাহলে কি তালিবান কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে গোপন ষড়যন্ত্র শুরু করছে।