Press "Enter" to skip to content

তালিবানি ফরমান পাকিস্তানেও, নিষেধাজ্ঞা জারি হলও জিনস পরায়! মহিলাদের জন্য ড্রেস কোড


নয়া ঃ ের িয় শিক্ষা নির্দেশালয় একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে শিক্ষককে জিন্স আর টাইট পোশাক পরার থেকে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এছাড়াও পুরুষ শিক্ষকদের জিন্স আর টি-শার্ট পরা থেকে রোখার জন্যও বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। পাকিস্তানের ডন নিউজের রিপোর্ট অনুযায়ী, এই বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রালয় থেকে সোমবার স্কুল আর কলেজের অধ্যাপকদের চিঠি পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে অধ্যাপকদের এটা সুনিশ্চিত করার জন্য বলা হয়েছে যে, প্রত্যেক স্টাফ নিজেদের পোশাক ঠিক করুক যাতে সমাজের কাছে একটি ভালো বার্তা যায়। চিঠিতে নিয়মিত চুল কাটানো, দাড়ি ট্রিম করা, নখ কাটানো রোজ স্নান করা এবং সুগন্ধির ব্যবহার করা নিয়েও কথা বলা হয়েছে।

পাকিস্তানের শিক্ষা বিভাগ জানিয়েছে যে, আমরা গবেষণায় পেয়েছি যে পরনের প্রভাব মানুষের বিচারধারায় পড়ে। প্রথম প্রভাব পড়ুয়াদের ব্যক্তিত্বের উপর পড়ে। আর এই কারণেই আমরা এটা ঠিক করেছি যে, মহিলা শিক্ষক এখন থেকে জিন্স আর টাইট পোশাক পরবে না। পুরুষ শিক্ষকদেরও জিন্স আর টিশার্ট পরাতেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হচ্ছে। তাঁদের ক্লাস রূম এবং ল্যাবে টিচিং গাউন বা কোট পরতে হবে।

পাকিস্তানের নিউজ চ্যানেলে শিক্ষা বিভাগের এই ফরমানের বিরুদ্ধে আওয়াজ উঠছে। অনেকেই বিরোধিতার সুরে বলছেন, যেই দেশের যৌন শোষণের জন্য মহিলাদের বসনকে দোষ দেয়, সেখানে এরকম ফরমান জারি হওয়া মামুলি ব্যাপার। কিন্তু, ওনাকে এও বলতে হবে যে, তিন বছরের বাচ্চাকে করে খুন করার জন্য কোন নিয়ম লাগু হয়?