Press "Enter" to skip to content

তালিবানের পঞ্জশির দখলে দাবি নস্যাৎ করে হুঙ্কার সালেহ’র, বললেন মাটি রক্ষার জন্য এখানেই আছি


নয়া দিল্লিঃ ২০ বছর পর আফগানিস্তানের ক্ষমতায় ফেরা শুক্রবার দাবি করেছে যে, তাঁরা পঞ্জশিরে কবজা করে নিয়েছে। বিভিন্ন মিডিয়া রিপোর্টেও দাবি করা হচ্ছে যে, তালিবান পঞ্জশির দখলে নিয়ে নিয়েছে। শুধু তাই নয়, এমনও খবর ছড়াচ্ছে যে, নিজেকে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি ঘোষণা করা অমরুল্লাহ সা পঞ্জশির ছেড়ে পালিয়েছেন।

মিডিয়া আর তালিবানের এই দাবির মধ্যে আফগানিস্তানের কার্যবাহ রাষ্ট্রপতি সামনে এসে পরিষ্কার জানিয়েছেন যে, তিনি পঞ্জশির বা দেশ কোনটাই ছেড়ে পালান নি। সালেহ জানিয়েছেন, তিনি এখনও পঞ্জশিরেই রয়েছেন আর প্রতিরোধ বাহিনীর নেতৃত্ব দিয়ে চলেছেন।

-18 এর রিপোর্ট অনুযায়ী, অমরুল্লাহ সালেহ তালিবানের পঞ্জশির দখল করার দাবিও খারিজ করে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, বিগত চার পাঁচ দিন ধরে তালিবান আর তাঁদের সঙ্গীরা পঞ্জশিরে লাগাতার হামলা করে চলেছে। কিন্তু আমাদের প্রতিরোধের ফলে ওঁরা বারবার মার খেয়ে পালাচ্ছে। সালেহ আরও বলেন, ‘কয়েকটি মিডিয়া রিপোর্টে মিথ্যে খবর ছড়ানো হচ্ছে যে, আমি দেশ থেকে পালিয়ে গিয়েছি। এটা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। এটা আমার আওয়াজ, আর আমি পঞ্জশির থেকেই আপনাকে ফোন করছি। আমি আমার কম্যান্ডার আর রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে রয়েছি।”

সালেহ একটি বার্তাও জারি করেছেন। ‘সেখানে তিনি বলেছেন, আমি এই ভিডিওর মাধ্যমে আশ্বস্ত করতে চাই যে, আমাকে নিয়ে যে গুজব ছড়াচ্ছে সেগুলো সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। না আমি আহত, আর না আমি দেশ ছেড়ে পালিয়েছি। আমাদের প্রতিরোধ জারি রয়েছে। আর জারি থাকবেও। আমি আমার মাটির সঙ্গেই রয়েছি। আমি আমার মাটির রক্ষার জন্য এখানেই থাকব।” সালেহ বলেন, আমি তালিবানদের সামনে মাথা না নোয়ানোর প্রতিজ্ঞা করেছি।

https://platform.twitter.com/widgets.js