Press "Enter" to skip to content

তালিবানের সঙ্গ দেওয়ায় বড় ঝটকা খেতে চলেছে পাকিস্তান, সম্পর্ক ছিন্ন করতে পারে আমেরিকা


নয়া ঃ  আর তালিবানের মধ্যে অটুট বন্ধুত্ব এখন অনেক দেশেরই চোখে লাগছে। আর এই কারণে আমেরিকা এখন সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে তাঁরা পাকিস্তানের সঙ্গে তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে ভাবা শুরু করবে। আগামী দিনে পাকিস্তানের সঙ্গে কেমন সম্পর্ক রাখবে আমেরিকা, সেই নিয়ে নেওয়া হবে সিদ্ধান্ত।

অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন পরিস্কার জানিয়েছেন যে, পাকিস্তানের সঙ্গে তালিবানের এই মিত্রতা রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র। এর জন্য গত ২০ বছরে পাকিস্তানের ভূমিকা নিয়ে সমীক্ষা করার পর সিদ্ধান্ত নেবে।

ব্লিঙ্কেন ে ভারতের উপস্থিতির প্রশংসা করেছেন। উনি বলেছেন, আফগানিস্তানে ভারতের উপস্থিতির কারণে পাকিস্তানের ক্ষতি হবে এবং জঙ্গি গতিবিধিতেও প্রভাব পড়বে। অন্যদিকে রিপাবলিক কংগ্রেস সদস্য মার্ক গ্রিন বলেছেন, আইএসআই যেভাবে তালিবান আর হাক্কানি নেটওয়ার্ককে প্রকাশ্যে সমর্থন করছে, সেই হিসেবে ভারতের সঙ্গে আরও মজবুত সম্পর্ক করা নিয়ে ভাবা উচিৎ আমাদের।

মার্কিন সংসদে বিদেশ মামলার সমিতির সদস্য বিল কিটিং বলেছেন, তালিবানকে আবারও দাঁড় করাতে ২০১০ সাল থেকেই পাকিস্তান সাহায্য করে চলেছে। উনি আরও বলেন, মার্কিন জওয়ানদের মৃত্যুতে যেই হাক্কানি নেটওয়ার্ক যুক্ত রয়েছে, পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা এখন তাঁদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চলছে।

মার্কিন বিদেশ মন্ত্রী বলেন, পাকিস্তানকে ভালো ভূমিকা পালন করতে দেখতে চেয়েছিলাম। আর এই কারণে আগামী দিনে তাঁদের ভূমিকা কী হবে, সেটা আমাদের সঙ্গে াবাদের সম্পর্ক নির্ধারিত করবে। উনি বলেন, পাকিস্তান এই সময়ে একটি রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র করছে। একদিকে ওঁরা তালিবানকে লালন-পালন করছে, অন্যদিকে সন্ত্রাসবয়াদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযানের সঙ্গেও যুক্ত রয়েছে।