Press "Enter" to skip to content

তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধানকে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধর দলেরই সদস্যদের


তৃতীয়বার ক্ষমতায় ফেরার পর থেকে ের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব লাগাতার বেড়ে চলেছে। আর এবার দলেরই পঞ্চায়েত প্রধানকে রাস্তায় ফেলে পেটানোর অভি উঠলো দলেরই নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে।

ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের ভরতপুরের ৩ নম্বর ব্লকের বৈদ্যপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। সেখানে তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধান সমরেন্দ্র সরকারকে অফিস থেকে বের করে ব্যাপক মারধরের অভিযোগ উঠেছে দলেরই উপপ্রধান তহমিনা বিবির স্বামী আলিম মোল্লা, পঞ্চায়েত সমিতিত শিক্ষা কর্মধ্যক্ষ তপন শেখ, পঞ্চায়েত সদস্য সাদেক আলি ও আরও দু পঞ্চায়েত সদস্যের বিরুদ্ধে।

সমরেন্দ্রবাবু দাবি করেছেন যে, ওনাকে অফিসের ভিতরেই অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করা হয়েছে। তিনি জানান, তাঁকে টেনে চেয়ার থেকে তুলে নিয়ে রাস্তায় ফেলে মারধর করা হয়েছে।

দলেরই নেতাদের হাতে মার খেয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় ে ভর্তি হয়েছেন সমরেন্দ্রবাবু। তিনি জানান, বুধবার দুয়ারে সরকার ক্যাম্প রয়েছে এলাকায়। মঙ্গলবার সকালে এরজন্য পঞ্চায়েতে ভিড় একটি বেশিই ছিল। আর সেই সময় পঞ্চায়েত সদস্য সাদেক আলি আমার কাছে একটি ব্ল্যাঙ্ক সার্টিফিকেটের দাবি করেন।

সমরেন্দ্রবাবু জানান, আমি ওই সার্টিফিকেট দিতে অস্বীকার করায় আমাকে অফিসের মধ্যে চেয়ার থেকে টেনে হিঁচড়ে তুলে নিয়ে রাস্তায় ফেলে মারধর করে ওঁরা।