Press "Enter" to skip to content

ত্রিপুরাতে গোরক্ষা ও জন্মনিয়ন্ত্রণ বিলের দাবিতে সরব বিজেপি বিধায়ক

জন্মনিয়ন্ত্রণ বিল এবং গোরক্ষা বিল নিয়ে শাসিত , অসম ইতিমধ্যে লাইমলাইটে চলে এসেছে। এবার সে তালিকায় নাম জুড়তে চলেছে বিজেপি শাসিত আরেক রাজ্য ত্রিপুরাও। জন্ম নিয়ন্ত্রণ প্রসঙ্গ এবং গোরক্ষার দাবি তুলে বিধানসভার আগামী অধিবেশনে সরব হওয়ার দাবি তুলেছেন ত্রিপুরার বিধায়ক সুধাংশু দাস।

ত্রিপুরার ফটিকরায় বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি বিধায়ক সুধাংশু রায়ের এ প্রসঙ্গে বলেছেন, অতিরিক্ত জন বিস্ফোরণ আমাদের দেশের কাছে একটা অভিশাপ। জন বিস্ফোরণ নিয়ন্ত্রণে দেশে সুর্নিদিষ্ট আইন থাকা দরকার। এটা সম্ভব হলে তবেই দেশে এই সমস্যার সমাধান হবে। আমাদের ভৌগলিক পরিবেশের একটা সীমাবদ্ধতা রয়েই যায়। সে দিকটা মাথায় রেখে প্রত্যেক রাজ্যের উচিৎ নিজের মতো করে পরিবার পরিকল্পনা নিয়ে আইন প্রণয়ন করা।

একই সঙ্গে সুধাংশু বাবুর আরও জোরালো দাবি, শুধুমাত্র গরু পাচারই নয়, যে কোনও ধরনের পাচারই বেআইনী। এ ব্যাপারে আমাদের মুখ্যমন্ত্রীও জিরো টলারেন্সে থাকবে বলে জানিয়েছেন। সীমান্তবূ এলাকায় কোনোপ্রকার পাচার করতে দেওয়া হবে না। প্রয়োজনে কঠোর থেকে কঠোরতম পদক্ষেপ করা হবে।

সম্প্রতি ‘গবাদি পশু ’ পেশ করেছেন। তবে শুধু অসমই নয়, ভারতবর্ষের অনেক রাজ্য‌ই গো-সংরক্ষণে কড়া আইন আনতে বদ্ধপরিকর। এবার সেই একই পথের পথিক হতে চাইছে ত্রিপুরাও। সুধাংশু দাসের বলেছেন, গাভী আমাদের মায়ের মতো‌ যেমন পূজনীয়। হিন্দু ধর্মে গরুকে দেবী রূপে মানা হয়‌। সুতরাং তাদের সংরক্ষণের দরকার এবং আমার দৃঢ় বিশ্বাস সরকার সেই দাবি পূরণের জন্য কখনওই নীরব হবেন না।