Press "Enter" to skip to content

ত্রিপুরায় হোটেল থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হল ঋতব্রতকে, তালিবানি শাসন বলে তোপ শ্রমিক নেতার


বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ত্রিপুরা () নিয়ে উঠেপড়ে লেগেছে তৃণমূল (All India Congress) । রোজই কোনও না কোনও নেতা বিপ্লব দেবের রাজ্যে গিয়ে তুলকালাম কাণ্ড বাধাচ্ছেন। আর এবার বিপ্লবের রাজ্যে হেনস্থার শিকার হলে তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের নেতা ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় (Ritabrata Banerjee)। তাঁকে হোটেলে থাকতে দেওয়া হয়নি বলে অভি উঠেছে।শেষমেশ বুধবার রাতে তাঁকে একটি হোটেলে থাকতে দেওয়া হয়। কিন্তু বৃহস্পতিবার ভোর হতেই তাঁকে সেখান থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

এই ঘটনার পরেই ত্রিপুরার ি ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন তৃণমূল নেতা ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বিপ্লব দেবকে তোপ দেগে বলেন, তালিবানি কায়দায় ত্রিপুরায় তৃণমূল নেতা-কর্মীদের উপর অত্যাচার চলছে।

উল্লেখ্য, বুধবার ত্রিপুরায় গিয়েছেন ঋতব্রতবাবু। সেখানে তিনি থাকার জন্য হোটেলে হোটেলে ঘুরলেও তাঁকে একটিও রুম দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। শেষমেশ বহু কষ্টে একটি রুম জোগাড় করেন তিনি। বুধবার রাতে সেখানেই ছিলেন তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের নেতা। কিন্তু ভোর হতে না হতেই তাঁকে রুম ছাড়তে বলে হোটেলের কর্মীরা। বাধ্য হয়ে তিনি হোটেল ছেড়ে সদ্য তৃণমূলে যোগ দেওয়া সুবল ভৌমিকের বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেন।

ঋতব্রতবাবু জানান, হোটেলের কর্মীরা তাঁর সঙ্গে কোনও দুর্ব্যবহার করেনি। তাঁরা শুধু এটুকু জানিয়েছে যে, তাঁদের উপর চাপ রয়েছে। আর সেই কারণেই বাংলার তৃণমূল নেতাকে হোটেল ছাড়তে হবে। ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় এই ঘটনার বিরুদ্ধে গর্জে উঠে রাজ্যের সরকারকে তালিবানি শাসনের সঙ্গে তুলনা করেছেন।