Press "Enter" to skip to content

ত্রিপুরা গেলে গ্রেফতার হতে পারেন অভিষেক, সঙ্গিন মামলায় অভিযোগ দায়ের করল পুলিশ

আগরতলাঃ ত্রিপুরায় (Tripura) সংঘর্ষের জেরে, ) সহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করল । সে তালিকায় নাম রয়েছে তৃণমূল নেত্রী দোলা সেন, মুখপাত্র কুণাল ঘোষ, শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু এবং সুবল ভৌমিকের।

ত্রিপুরায় নিজেদের জমি শক্ত করতে গিয়ে গত শনিবার হামলার শিকার হন তৃণমূল যুব নেতা দেবাংশু, জয়া, সুদীপরা। তাঁদের উপর হামলা হওয়ায়, জয়া এবং সুদীপ আহত হয়। এই ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার রাত থেকে খোয়াই থানার সামনে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে বসে ত্রিপুরার তৃণমূল বাহিনী।

দফায় দফায় এই সংঘর্ষের জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ত্রিপুরা। চরম উত্তেজনা ছড়ায় গোটা ত্রিপুরায়। এরপর রবিবার ভোররাতে মহামারি আইন লঙ্ঘন করার অপরাধে দেবাংশু, জয়া, সুদীপদের গ্রেফতার করে খোয়াই থানার পুলিশ। এরপর এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে সকাল সকালই সেখানে উপস্থিত হন দোলা সেন, কুণাল ঘোষ, ব্রাত্য বসুরা। বেলা গড়াতেই সেখানে হাজির হন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

এরপর শুরু হয় পুলিশের সঙ্গে বচসা। গ্রেফতার করা তৃণমূল কর্মীদের জামিনের দাবিতে কথা কাটাকাটি হয় পুলিশ আধিকারিকের সঙ্গে। পুলিশ আধিকরিককে হুঁশিয়ারিও দিতে শোনা যায় অভিষেকের গলায়। শেষে ব্যক্তিগত বন্ডে, ছাড়িয়ে কলকাতায় এনে চিকিৎসা করা হয় আহত জয়া, সুদীপদের।

এবার এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সহ, দোলা সেন, কুণাল ঘোষ, ব্রাত্য বসু এবং সুবল ভৌমিকদের নামে FIR দায়ের করল ত্রিপুরা পুলিশ। এই ঘটনায় দোলা সেন বলেন, ‘তৃণমূলকে ভয় পাচ্ছে ত্রিপুরার বিজেপি । ডাকলে, ডাকবে আমাদের। ওঁরা যতই বিচার বিভাগকে কেনার চেষ্টা করুক না কেন, বিচারের উপর আস্থা আছে আমাদের’।