Press "Enter" to skip to content

দল ছাড়ার জের, তুলে নেওয়া হল জিতেন্দ্র তিওয়ারির নিরাপত্তা!


আসানসোলঃগতকাল দুপুরে ) ছেড়েছিলেন প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রী ()। এর ঠিক কয়েক ঘণ্টার মধ্যে আসানসোলের পুর প্রশাসক পদ থেকে ইস্তফা দেন পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারি (Jitendra Tiwari)। ওনার ইস্তফা দেওয়ার পরপরই ওনার অফিসে ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ ওঠে। এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে পুর প্রশাসকের পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যে তৃণমূলের সাথে সমস্ত সম্পর্ক চুকিয়ে দল ত্যাগ করেন তিনি।

দল ত্যাগের ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই জিতেন্দ্র তিওয়ারির নিরাপত্তা কমানো হল। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, ওনার চারজন দেহরক্ষীর মধ্যে দুজনকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। আর বাকি দুজনকে আজ সরিয়ে নেওয়া হবে বলে সুত্রের খবর। এমনকি ওনার অফিসেরও নিরাপত্তা কমিয়ে নেওয়া হয়েছে। তবে জিতেন্দ্র তিওয়ারির বাড়িতে আগের মতই নিরাপত্তা জারি আছে।

প্রসঙ্গত, আজ কলকাতায় যাচ্ছেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি। এর আগে চিঠি ফাঁস হওয়ার পর জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে কলকাতায় তলব করা হয়েছিল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে ওনার আজ শুক্রবার বৈঠক হওয়ারও কথা ছিল। তবে এখন সেই বৈঠক বিশবাঁও জলে। উনি পুর প্রশাসক আর তৃণমূল ছাড়াও পর পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ক পদও ছাড়তে চলেছেন।

আরেকদিকে, ওনার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা ওঠার পরই বিজেপির সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র প্রতিক্রিয়া সামনে আসে। পরিস্কার জানিয়ে দেন যে, জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে তিনি মন থেকে দলে মেনে নিতে পারবেন না। তবে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তকে তিনি অমান্যও করতে পারবেন না। আরেকদিকে, জিতেন্দ্র বাবু, বাবুল সুপ্রিয়র এই মন্তব্যের পর বলেন, উনি নিজের দলের কর্মীদের ভালোেন বলেই এই কথা বলেছেন। উনি আমাকে পছন্দও করেন না।