Press "Enter" to skip to content

দিগ্বিজয় সিংকে হিন্দু বিরোধী বয়ান দেওয়া থেকে আটকান! সোনিয়া গান্ধীকে চিঠি লিখে নালিশ কংগ্রেস নেতার

মুম্বাইঃ মহারাষ্ট্রের এক দলের সভাপতি গান্ধীকে চিঠি লিখে মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দিগ্বিজয় সিংকে হিন্দু বয়ান দেওয়া বন্ধ রাখার আবেদন জানিয়েছেন। বিশ্ববন্ধু নামের কংগ্রেস নেতা অভিযোগ করে বলেছেন যে, দিগ্বিজয় সিং গত ১৮ বছর ধরে লাগাতার বয়ান দিয়ে আসছে। আর এই কারণে দলের অনেক ক্ষতি হচ্ছে। বিশ্ববন্ধুর মতে, দলের উচিৎ ওনাকে এখনি চুপ করানো, যদি সেটা না করা হয়, তাহলে আগামী দিনে দলকে আরও ক্ষতির মুখে পড়তে হবে।

বিশ্ববন্ধু সোনিয়া গান্ধীকে চিঠি লিখে জানিয়েছেন, দিগ্বিজয় সিং ২০০৩ সালে মধ্যপ্রদেশের ক্ষমতা থেকে বেদখল হওয়ার পর থেকেই দলের হিন্দু ভোটারদের লাগাতার ক্ষুব্ধ করে আসছেন। তিনি লিখেছেন, ‘দিগ্বিজয় সিং একটি বিশেষ শ্রেণীর ভোটারদের খুশি করার জন্য লাগাতার হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত করে আসছে। কিছুদিন আগে ৩৭০ ধারা নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করে তিনি দলের বাকি হিন্দু ভোটারদেরও ক্ষুব্ধ করেছেন।”

বিশ্ববন্ধুর মতে, প্রতিটি রাজ্যেই ওনার কারণে দল ক্ষতির মুখে পড়ছে। তিনি লিখেছেন, ‘কংগ্রেস ওনাকে গোয়ার পর্যবেক্ষক বানিয়েছিল, সেখানকার বিধানসভা নির্বাচনে সবথেকে বড় দল হিসেবে কংগ্রেস উঠে এলেও আমরা সরকার বানাতে পারিনি। দিগ্বিজয় সিংয়ের দায়িত্ব জ্ঞানহীন আচরণের কারণেই এটা হয়েছে। উনি পর্যবেক্ষক থাকাকালীন অন্ধ্র প্রদেশ, তেলেঙ্গানার মতো রাজ্যেও দলের ক্ষতি হয়েছে।”

বিশ্ববন্ধু সোনিয়াকে চিঠির সঙ্গে দিগ্বিজয় সিংয়ের একটি কার্টুনও পাঠিয়েছেন। চিঠিতে বিশ্ববন্ধু লিখেছেন, ‘এত কিছুর পরেও ওনাকে দলের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব, পদ আর রাজ্যসভার সদস্যতা দেওয়ার কারণে ভোটারদের মানসিকতায় বিরুপ প্রভাব পড়েছে। দয়া করে আমার কথাটি গম্ভীর ভাবে নিয়ে ওনার বিরুদ্ধে তৎক্ষণাৎ অ্যাকশন নিন।”