Press "Enter" to skip to content

দিল্লীর মদনপুর এলকায় ৫.২ একর জমি দখল করে নিল রোহিঙ্গারা, কেজরিওয়ালের পার্টি সাহায্য করেছে বলে দাবি

বাহ্যিক আক্রমন থেকে দেশকে রক্ষার জন্য দেশের সেনা ও ভারত সরকার সমস্ত শক্তি ঝুঁকে দেয় তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। ভারত মাতার দিকে চোখ তুলে তাকানো শত্রুদের বিশ্ব থেকে মুছে ফেলার ক্ষমতা রাখে ভারতীয় সেনা। তবে দেশের শুভচিন্তকদের এবার বাহ্যিক শত্রুর থেকে অভ্যন্তরীণ শত্রুর দিকে বেশি নজর দেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে।

আসলে ভারতের ভেতরেই এবার বিদেশীদের শক্তি বৃদ্ধি পেতে শুরু হয়েছে। বিদেশী অনুপ্রবেশকারীরা ভারতের জমি দখল করে নিতে শুরু করেছে এবং দেশকে ভেতর থেকে দুর্বল করতে লেগে পড়েছে। আর এই বিদেশী অনুপ্রবেশকারীদের সাহায্য করেছে ভারতেরই কিছু রাজনৈতিক কট্টরপন্থী নেতা।

খবর আসছে, দিল্লীতে ৫.২ একর জমি বিদেশী অনুপ্রবেশকারীরা দখল করে নিয়েছে। বিদেশি রোহিঙ্গারা ভারতের রাজধানী দিল্লিতে ৫.২ একর জমি দখল করেছে। বলা হচ্ছে, কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টির নেতাদের সহায়তায়, রোহিঙ্গারা দিল্লির ৫.২ একর জমি দখল করেছে।

দাবি করা হচ্ছে, আম আদমি পার্টির সাহায্য নিয়ে রোহিঙ্গারা জালি আধার কার্ড, রেশন কার্ড বানিয়ে নিয়েছে। রোহিঙ্গারা মদনপুর খাদের 5.2 একর জমি অবৈধভাবে দখল করেছে। কেজরিওয়ালের দলের আমানাতুল্লাহ খানের সাহায্যে রোহিঙ্গা মুসলিমরা মদনপুর খাদের জমি দখল করেছে।

দৈনিক ভাস্করে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, রোহিঙ্গা মুসলিমরা দিল্লীর জমি দখল করে সমস্ত সুযোগ সুবিধা ভোগ করছে। দিল্লীতে থাকা এমনিতেই যে কোনো মানুষের কাছে ব্যায় বহুল কিন্তু বিদেশী রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশীরা খুবই স্বাচ্ছন্দে অবৈধভাবে জমি দখল করে বসবাস করছে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, আমানাতুল্লাহ খানের সাহায্যে ৩০০ জন রোহিঙ্গা মুসলিম জমি দখল করেছে। প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, রোহিঙ্গা মুসলিমরা বেশিরভাগ আতঙ্কবাদী মানসিকতাসম্পন্ন ও ভারত বিরোধী। তাই দেশের জনতা চাপ দিয়ে সরকারকে পদক্ষেপ গ্রহণে বাধ্য না করলে আগামী প্রজন্মকে বিপদের মুখোমুখি হতে হবে তা নিয়ে সংশয় রাখা উচিত নয়।