Press "Enter" to skip to content

দুর্ঘটনায় আহত মুসলিম বোনের চিকিৎসার জন্য হাত বাড়িয়ে দিল বজরঙ্গি ভাইয়েরা


১ লা মার্চ পুরুলিয়ার রঘুনাথপুর আইটিআই রোডে সিমি খাতুন (১৮) মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় কবলে পড়ে। পুরুলিয়া রঘুনাথপুর গার্লস হাই স্কুল এর একজন একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী সে। বাবার নাম-শেখ বিলাল ,মায়ের নাম -সোনি বিবি। সিমি খাতুন আশ্রম রোড ,ওয়ার্ড নং ৮ এর বাসিন্দা। এই দুর্ঘটনায় সিমি খাতুন গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভরতি হয়েছে।

একটি গাড়ি এসে সন্ধ্যে সাতটা নাগাদ সিমি খাতুনকে ধাক্কা মারে। এরপর স্থানীয় মানুষ তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করায়। গাড়ির সজরে ধাক্কায় সিমির মাথায় গুরুতর আঘাত লেগেছে আর তাঁর ডান দিকের চোয়ালও ভেঙে গেছে। সিমি এখন আপাতত রাঁচির রাজেন্দ্র প্রসাদ আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থানে চিকিৎসাধিন।

দিন মজুর বাবা শেখ বিলাল সিমির চিকিৎসার জন্য অর্থের যোগান দিতে ব্যর্থ। এরপরই বজরং দলের সদস্যেরা সিমির দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। তাঁরা নিজের সাধ্যমত সিমির চিকিৎসার জন্য অর্থের যোগান দেওয়ার সাথে সাথে সিমির জন্য সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার চালাচ্ছে।

একদিকে কিছুদিন আগে দিল্লীতে ঘটে যাওয়া হিংসার পর যখন মনে হচ্ছিল, দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট হয়ে গেছে। তখন আরেকদিকে হিন্দু ভাইদের এক মুসলিম বোনের জন্য এই সংগ্রাম সবার নজর কাড়ছে। পুরুলিয়ার বজরং দলের সংযোজক প্রণব বিশ্বাস জানান, সিমির চিকিৎসার ১০ শতাংশ অর্থ জোগাড় করার ক্ষমতা তাঁর পরিবারের নেই। তাই আমরা সিমির পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে তাঁর চিকিৎসার জন্য অর্থের জোগানের যথাসাধ্য চেষ্টা চালাচ্ছি। তিনি বলেন, আমরা নিশ্চিত আমরা সিমিকে সম্পূর্ণ সুস্থ ভাবে বাড়িতে আনতে পারব।