Press "Enter" to skip to content

দেশদ্রোহী কার্যকলাপ করার জন্য উমর খালিদ ও কানায়া কুমারকে দেওয়া হলো বড় ঝটকা।

এর তদন্তকারী কমিটি দুটি বড় সিধান্ত নিয়ে বামপন্থী সংগঠনকে বড় ঝটকা দিয়েছে। কমিটি উমর খালিদকে বহিষ্কার ও কানায়া কুমারকে ১০,০০০ টাকার জরিমানা দেওয়ার ঘোষণা করেছে। ক্যাম্পাসে দেশদ্রোহী স্লোগান দেওয়া ও আফজল গুরুর সমর্থনে স্লোগান দেওয়ার পর এই কমিটির গঠন করা হয়েছিল।

পাঁচ সদস্য প্যানেল ১৩ ছাত্রের উপর জরিমানা করেছিল যারপর ছাত্ররা দিল্লি হাইকোর্টের দরজা খটখতিয়েছিল। আদালত এই মামলা এপিলি আধিকারিকের কাছে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেয়।৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ তে আফজল গুরুর ফাঁসি দেওয়া ৩ বছর পূর্তি হওয়ায় কিছু ছাত্র সংগঠন এক সভার আয়োজন করে ভারতের সংবিধানের অপমান করে আফজল গুরুর সমর্থনে স্লোগান দিয়েছিল। অভিযোগ যে ওই সভার করা কোনো অনুমতি ছিল না তা সত্ত্বেও সভার আয়োজন করা হয়েছিল। শুধু তাই নয় সভায় ‘আফজল তেরে কাতিল জিন্দা হ্যায়’, ‘ভারত তেরে টুকরো হঙ্গে ইনসাল্লা’ ‘ঘর ঘর সে আফজাল নিকলে গা’ এর মত স্লোগান শোনা গেছিলো।

এপিভিপি এর প্রতিবাদের পর উনিভার্সিটির প্রশাসন নড়েচড়ে বসে এবং তদন্ত কিমিটি গঠন করেবছিল। এবিপিভি এই সভাকে রাষ্ট্রবিরোধী সভা বলে ঘোষণা করে যার ভিত্তিতে ২০১৬ সালে কানায়া কুমার সহ তিন জনকে গ্রেপ্তার ও করা হয়েছিল।
এখন JNU ইউনিভার্সিটির উচ্চস্তরের তদন্ত কমিটি উমর খালিদকে কে বহিষ্কার করার ও কানায়া কুমার কে ১০,০০০ টাকা জরিমানা দিতে বলেছে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.