Press "Enter" to skip to content

দেশের মানুষদের জন্য আরেক বড়ো পদক্ষেপ নিতে চলেছে মোদী সরকার।

কেউ যদি জিজ্ঞাসা করে দুর্নীতি দমনের জন্য মোদী সরকারের সবথেকে বড়ো পদক্ষেপ কি ছিল, তার উত্তর হবে আধারলিংক এর সঠিক ব্যাবহার। আসলে মোদী সরকার কেন্দ্রে আসার পর থেকে বহু ক্ষেত্রে আধারলিংক করার নির্দেশ দেয়, যার পর দেশের বহু দুর্নীতি সরকারের সামনে চলে আসে। উদাহরণসরূপ আধার লিংকের পর থেকে বহু কোটি জালি রেশনকার্ড বাতিল হয়ে যায়, বহু জালি মাদ্রাসায় পড়া ছেলেও উধাও হয়ে যায়।

আরোও পড়ুন – আবার ইতিহাস গড়লেন মোদীজি 

যার ফলে সরকারের একটা বিশাল অঙ্কের টাকা বেঁচে যেতে শুরু করে যা আগে দুর্নীতিগ্রস্থ মানুষদের পকেটে ঢুকে যেত। জানলে অবাক হবেন আধারলিংকের পর ভারতের দুর্নীতি দমনের কাজ দেখে বিশ্বের অন্যান দেশগুলিও আধার ব্যাবস্থাকে নিজেদের দেশে আনতে চলেছে। তাই মোদী সরকার আধার ব্যাবস্থাকে আরো উন্নত করার জন্য আরেক বড়ো পদক্ষেপ নিতে চলেছে যা বহু দুর্নীতিগ্রস্থ দালালদের দোকান বন্ধ করবে। আসলে খবর পাওয়া যাচ্ছে কেন্দ্রীয় কানুন মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ আরো একবার অসাধারণভাবে আধার ব্যাবস্থাকে কাজে লাগাতে চলেছে।

আরোও পড়ুন – আবার হল তৃণমূলে বড়সর ভাঙ্গন , জানেন কোথায় ?

কানুনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ ড্রাইভিং লাইসেন্সকে আধারের সাথে যুক্ত করার জন্য ঘোষণা করেছেন। মঙ্গলবারদিন রবিশঙ্করজি প্রেসকনফারেন্সে জানিয়েছেন যে এই ব্যাপারে এগিয়ে যাওয়ার জন্য তিনি কেন্দ্রীয় পরিবহনমন্ত্রী নীতিন গতকড়ির সাথে কথা বলেছেন। ড্রাইভিং লাইসেন্সকে আধারের সাথে যোগ করার পর বহু দালালদের দুর্নীতি একেবারে বন্ধ হয়ে যাবে ।একই সাথে যারা নেশা করে গাড়ি চালিয়ে দুর্ঘটনা ঘটায় এবং অনত্র পালিয়ে যায় তাদেরকেও ধরা সহজ হবে। শুধু এই নয় এরপর থেকে কোনোভাবেই ব্যাক্তি ভুয়ো লাইসেন্স তৈরী করতে পারবেন না কারণ কোনো ব্যাক্তি নাম পরিবর্তন করতে পারলেও ফিঙ্গারপ্রিন্ট পরিবর্তন করতে পারবে না। মোদী সরকারের এই পদক্ষেপ দেশের জনগণের জন্য একটা লাভদায়ক পদক্ষেপ তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

আরও পড়ুন- আপনি ঈদ পালন করেননি, তাহলে কি আমরা আপনাকে হিন্দু নেতা বলতে পারি?” এই প্রশ্নের উত্তরে যোগী আদিত্যনাথ যা উত্তর দিলেন[sg_popup id=”6″ event=”onload”][/sg_popup]

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.