Press "Enter" to skip to content

দ্বারকাধীশ মন্দিরে বজ্রপাত! পতাকায় মিলিয়ে গেল বিদ্যুৎ, ভাইরাল হলো ভিডিও

মঙ্গলবার দিন ের দ্বারকাধীশ ের উপর আচমকায় বজ্রপাত হয়। দুপুর ২ টো থেকে ২.৩০ এর মধ্যে ঘটনাটি ঘটে। এই ঘটনায় কারোর কোনো ক্ষতি হয়নি। অবশ্য এই ঘটনায় আশ্চর্যজনক এক বিষয় ঘটিত হয়। যা নিয়ে দেশজুড়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

প্ৰথমত জানিয়ে দি, বজ্রপাতের ফলে মন্দিরের চূড়ায় থাকা ৫২ গজের পতাকা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। বজ্রপাতের ফলে মন্দিরের দেওয়ালে সামান্য কালো দাগ তৈরি হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

এছাড়া মন্দিরের মধ্যে অন্য কোনো ক্ষতি হয়নি। দ্বারকাধীশ ধামের চারিদিকে জনবসতি বেশ ঘন। এর মধ্যে যদি বজ্রপাত মন্দিরের বাইরে অন্য স্থানে পড়তো তাহলে বড়ো সড়ো ক্ষতির আশঙ্কা উৎপন্ন হতো। এক ইউজার সোশ্যাল মিডিয়ায় বলেছেন, বিপদকে নিজের মস্তকে গ্রহণ করে আমাদের জীবন রক্ষা করলেন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

সবথেকে আশ্চর্যের বিষয় যে বিদ্যুৎ একেবারে মন্দিরের চূড়ায় পড়েছে। বিদ্যুৎ পড়ার সাথে সাথে পতাকার মধ্যে বিলীন হয়ে যায়। স্থানীয় লোকজনের মতে ভগবান শ্রী কৃষ্ণ তাদের বাঁচিয়েছেন। গুজরাটের গোমতী নদীর তীরে অবস্থিত এই মন্দির ভগবান কৃষ্ণকে সমর্পিত। অনেকে এই মন্দিরকে জগৎ মন্দিরও বলেন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

বলা হয় আজ থেকে ২২০০ বছর আগে বজ্রনাভ এই মন্দিরের নির্মাণ করিয়েছিলেন। হিন্দুদের চার ধামের মধ্যে এই মন্দিরকে একটি ধাম হিসেবে গণ্য করা হয়।দ্বারকাধীশ মন্দিরের ধজ্জা বা পতাকার বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। মন্দিরের পবিত্র পতাকাকে ৫২ গজ ধজ্জা বলা হয়। এখানে প্রতিদিন ৩ বার ধজ্জা উত্তোলন করা হয়।