Press "Enter" to skip to content

ধার্মিক কট্টরপন্থীরা ধ্বংস করে দিয়েছিল কাশ্মীরের ৭০০ বছরের পুরনো মন্দির, খুলে দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

শ্রীনগরঃ  থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার পর ধীরে ধীরে অনেক ঐতিহাসিক বদল দেখা যাচ্ছে। সন্ত্রাসবাদী হামলা আগের থেকে অনেক কমেছে। পাথরবাজির ঘটনাও কমেছে। তবে একেবারেই কোনও কিছুই সমাপ্ত হয়ে যায়নি। আর এবার বছর বছর ধরে বন্ধ থাকা মন্দির আবারও খোলার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

শ্রীনগরে বহু বছর আগে ভেঙে ফেলা ঐতিহাসিক শীতলনাথ মন্দির (Sheetalnath Temple) ২৬ বছর পর পুনরায় খোলা হল। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেলের উদ্েই এই ঐতিহাসিক মন্দির আবারও খুলল। মঙ্গলবার তিনি জম্মু কাশ্মীরের দু’দিনের যাত্রায় যান। সেখানে তিনি ৭০ বছরের পুরনো ঐতিহাসিক শীতলনাথ মন্দির নিয়ে তথ্য সংগ্রহ করেন।

ওনাকে জানানো হয় যে, ১৯৯৫ সালে কাশ্মীরি বিচ্ছিন্নতাবাদী আর জঙ্গিরা কাশ্মীরে অনেক মন্দিরে হামলা করে সেগুলিকে ধ্বংস করে দিয়েছিল। কয়েকটি মন্দিরে আগুন লাগিয়ে সেগুলি সম্পূর্ণ ভাবে জ্বালিয়ে দিয়েছিল। শীতলনাথ মন্দির ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া সেই মন্দিরগুলির তালিকাতেই ছিল।

আধিকারিকরা জানান, ওই হামলার পর থেকেই মন্দিরটি বন্ধ রয়েছে। এরপর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ সিং নিজে উদ্যোগ নিয়ে ঐতিহাসিক শীতলনাথ মন্দিরের দরজা খোলান আর সেখানে ভগবান শিবের অভিষেক করেন। পুজোর আগেই স্থানীয় প্রশাসন ওই পরিষ্কার করে। এরপর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিজে গিয়ে শিব দর্শন করেন এবং জলাভিষেক করেন।