Press "Enter" to skip to content

ধীরে ধীরে বিকল হয়ে পড়ছে চীনের থেকে কেনা পাকিস্তানের যুদ্ধবিমান, সারাই করতে পারছে না বেজিংয়ও


নয়া ি () রিপোর্টস অনুযায়ী JF-17 যুদ্ধবিমান পাকিস্তানের সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। পাকিস্তান বাহিনী ইঞ্জিনের ফাটল, দুর্বল পরিষেবা্যতা, উচ্চ রক্ষণাবেক্ষণ এবং এই বিমানগুলির অবনতিশীল কর্মক্ষমতা নিয়ে সমস্যায় পড়েছে। বলে দিই, ১৯৯ সালে চীন (China) আর পাকিস্তান JF-17 এর জয়েন্ট প্রোডাকশন চুক্তিতে সই করেছিল।

পাকিস্তানের এই যুদ্ধ বিমানকে ভারতের Su-30 MKI, মিগ-29 আর মিরাজ-2000 এর সঙ্গে তুলনা করা হত। JF-17 RD-93 এর অ্যারো-ইঞ্জিন কালো ধোঁয়া নির্গত করে, আর এই কারণে বিমান হামলার সময় সহজেই শত্রুর শিকার হতে পারে।

পাকিস্তান বিমান বাহিনী এই যুদ্ধবিমান নিয়ে চরম বিরক্ত, কারণ চীনের দাবির সঙ্গে বিমানের প্রযুক্তি খাপ খায় না। JF-17 যুদ্ধবিমানের ইঞ্জিন এবং তার দুর্বলতা নিয়ে পাকিস্তান বহুবার চীনের কাছে অভিযোগ করেছে, কিন্তু চীনের কাছ থেকে কোন নির্দিষ্ট প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

চীন JF-17 এর ইঞ্জিন বদলানোর চেষ্টা করেছিল, কিন্তু এর ইঞ্জিন রাশিয়ায় তৈরি। আর রাশিয়ার সঙ্গে চীনের কিছু নিষেধাজ্ঞা থাকার কারণেই বিমানের ইঞ্জিন বা অন্যান্য যন্ত্রাংশ মিলছে না। এবার চীন JF-17 এর ইঞ্জিন বদলের জন্য Guizhou WS-13 তাইশান ইঞ্জিন তৈরি করছে। কিন্তু এতে অনেক সময় লাগবে, কারণ এই কাজ একদম প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে।