Press "Enter" to skip to content

নিজেকে গর্বিত হিন্দু পরিচয় দিয়ে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বাইবেল বাদ দিয়ে গীতায় শপথ নিয়েছিলেন এই সাংসদ


ভারতীয় সংস্কৃতি এতটাই প্রভাবিত যে, দেশ ছাড়ার পরেও কোন মানুষ এই সংস্কৃতি থেকে আলাদা হতে পারেনা। আর সেটারই এক নিদর্শন দিলেন ব্রিটেনের রাজনেতা। এই নেতা একটি ইসাই দেশে থেকেও সর্বদা ভারতের সন্মান বারিয়েছেন। এই রাজনেতা যখনই ব্রিটেনের সাংসদ হন, তখন শুধুমাত্র হিন্দু ধর্মগ্রন্থ ভগবত গীতার উপরে হাত রেখে শপথ গ্রহণ করেন। এই নেতার নাম ()। ইনফোসিস (Infosys) এর ফাউন্ডার নারায়ণ মূর্তি এর জামাই ঋষি সম্প্রতি ব্রিটেনের অর্থমন্ত্রী হয়েছেন।

ঋষি শৌনক দ্বারা ভগবত গীতায় হাত রেখে শপথ নেওয়ার জন্য অনেক ব্রিটেনের নাগরিক ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। তা স্বত্বেও যখন এক ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ঋষির কাছে প্রশ্ন করে, তখন ঋষি গর্বের সাথে বলে আমি ব্রিটেনের নাগরিক, কিন্তু আমার ধর্ম হিন্দু। আমার ধার্মিক আর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ভারতীয়। আমি গর্ব করে বলি আমি হিন্দু। আর আমার পরিচয়ও হিন্দু।

আপনাদের জানিয়ে দিই, ঋষি শৌনক ব্রিটেনের রাজনীতিতে অনেকদিন ধরেই সক্রিয়। ২০১৭ সালে শৌনক দ্বিতীয়বার সাংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন। ৩৯ বছর বয়সী ঋষি অর্থমন্ত্রী রুপে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর পর দ্বিতীয় সবথেকে বড় পদে আছেন।

অর্থমন্ত্রী রুপে ওনার নতুন ঠিকানা ১১ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিট, যেটা প্রধানমন্ত্রী বোরিস জনসনের অফিসের পাশেই। শৌনক ইয়র্কশারায়ের রিচমন্ড থেকে সাংসদ। ২০১৫ সালে প্রথমবার ব্রিটিশ সংসদে পৌঁছান ঋষি নারায়ণ মূর্তির মেয়ে অক্ষতার সাথে বিয়ে করেছিলেন। ওনাকে ক্ষমতায় থাকা কনজারবেটিভ পার্টির উজ্জ্বল নক্ষত্র বলে মানা হয়।