Press "Enter" to skip to content

নিজের কোনও বাহন নেই প্রধানমন্ত্রীর, আর্থিক ক্ষতির সন্মুখিন অমিত শাহ! জেনে নিন ওনাদের মোট সম্পত্তির পরিমাণ

নয়া দিল্লীঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ()) সম্পত্তি ২০১৯ এর মোকাবিলায় ২০২০ সালে ৩৬ লক্ষ টাকা বেড়েছে। যদিও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী () এর সম্পত্তি গত বছরের তুলনায় এবছর কমেছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর তরফ থেকে জারি করা সম্পত্তির তাজা ঘোষণাপত্র অনুযায়ী, ৩০ জুন ২০২০ এ ওনার মোট সম্পত্তি ২ কোটি ৮৫ লক্ষ টাকা ছিল। গত বছর ওনার সম্পত্তি ২ কোটি ৪৯ লক্ষ ছিল।

যদিও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অচল সম্পত্তিতে কোনও বদল আসেনি। প্রধানমন্ত্রী গুজরাটের গান্ধী নগরে ১ কোটি ১ লক্ষ টাকার প্লট আর বাড়ি আছে বলে জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ৩০ জুন ৩ লক্ষ ৩৮ হাজার টাকা ছিল। উনি জুন মাসের শেষে ৩১ হাজার ৪৫০ টাকা নকদ নিজের কাছে রেখেছেন।

গান্ধী নগরের ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্ক শাখায় প্রধানমন্ত্রীর ফিক্সড ডিপোজিট অ্যামাউন্ট ৩০ জুন ২০২০ তে বেড়ে ১ কোটি ৬০ লক্ষ ২৮ হাজার ৩৯ টাকা হয়েছে। গত এই অ্যামাউন্ট ছিল ১ কোটি ২৭ লক্ষ ৮১ হাজার ৫৭৪ টাকা। লোকসভা নির্বাচনে দেওয়া হলফনামায় উনি নিজেই এই ঘোষণা করেছিলেন।

রিপোর্ট অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রীর কোনও ঋণ নেই আর ওনার কোনও নিজস্ব গাড়িও নেই। ওনার কাছে সোনার চারটে আংটি আছে। উনি নিজের জীবন বীমা পলিসির জন্য ১ লক্ষ ৫০ হাজার ৯৫৭ টাকার প্রিমিয়াম দেন। প্রধানমন্ত্রীর কাছে জাতীয় সঞ্চয়পত্র এর ৭ লক্ষ ৬১ হাজার ৬৪৬ টাকা ছিল। আর তিনি নিজের জীবন বীমার প্রমিয়াম রুপে ১ লক্ষ ৯০ হাজার ৩৪৭ টাকার প্রিমিয়াম শোধ করেছেন।

আরেকদিকে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ এর সম্পত্তি গত বছর ৩২.২ কোটি টাকা ছিল। সেটি ২০২০ এর জুন মাসে কমে ২৮.৬৩ কোটি টাকা হয়েছে। ঘোষণা অনুযায়ী, অমিত শাহ এর কাছে ১০ টি অচল সম্পত্তি আছে, সেগুলোর মোট ভ্যালু ১৩.৫৬ কোটি টাকার। ওনার কাছে নকদ ১৫ হাজার ৮১৪ টাকা আছে আর ১ কোটি টাকার ব্যাঙ্ক ব্যালেন্স আছে। ১৩.৪৭ লক্ষ টাকার জীবন বীমা পলিসি আছে। ২.৭৯ লক্ষ টাকার ফিক্সড ডিপোজিট আছে। আর ৪৪.৪৭ লক্ষ টাকা গহনা আছে। ২০২০ সালে শেয়ার মার্কেটে পতনের কারণে অমিত শাহ এর সম্পত্তির পরিমাণ কমেছে।