Press "Enter" to skip to content

নিজের দোষে মরেছে সাংবাদিক দানিশ সিদ্দিকি, আমরা ওঁর মৃত্যু নিয়ে ক্ষমা চাইব নাঃ তালিবান


ঃ  (United States) তুলে নেওয়ার পর তালিবান (Taliban) জঙ্গিরা আফগানিস্তানের (Afghanistan) বহু অংশ নিজেদের দখলে নিয়ে নিয়েছে। তালিবান ভারতের বিষয়ে জানিয়েছে যে, তাঁরা ভারতের (India) অভ্যন্তরীণ মামলায় নাক গলাবে না। আর আফগানিস্তানে ভারতের চলা প্রোজেক্টের কোনও ক্ষতিও করবে না। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় তালিবানের মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ (Zabiullah Mujahid) এই কথা বলেছে।

জবিউল্লাহ মুজাহিদ চিত্র সাংবাদিক দানিশ সিদ্দিকির (Danish Siddiqui) মৃত্যু নিয়েও মুখ খুে। মুজাহিদ জানিয়েছে, দানিশ যুদ্ধে মারা গিয়েছে, কার গুলিতে তাঁর মৃত্যু হয়েছে, এটা এখনও পরিস্কার না। পাশাপাশি দানিশের মৃতদেহর উপর নির্মম অত্যাচারের কথাও অস্বীকার করেছে তালিবানরা। উল্লেখ্য, খবর পাওয়া গিয়েছিল যে, তালিবানরা যখন জানতে পারে যে দানিশ সিদ্দিকি ভারতীয়, তখন তাঁরা তাঁর মৃতদেহর উপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে তাঁর মাথা থেঁতলে দেয়। যদিও, তালিবানের মুখাপাত্র এই কথা অস্বীকার করেছে।

তালিবান জানিয়েছে যে, দানিশ সিদ্দিকি নিজের মৃত্যুর জন্য নিজেই দায়ী। কারণ সে তালিবানের শত্রু ট্যাংকে সওয়ায় ছিল। পাশাপাশি তালিবানরা এও অস্বীকার করেছে যে, দানিশ যুদ্ধ ক্ষেত্রে আসার আগে তাঁদের থেকে অনুমতি নিয়েছিল। মুজাহিদ দানিশের মৃতদেহর ছবি দেখিয়ে প্রমাণ দেয় যে তাঁর মৃত্যুর পর তালিবানরা তাঁর দেহের উপর কোনও অত্যাচার করেনি। মুজাহিদ জানায়, দানিশের দেহ যুদ্ধগ্রস্ত এলাকায় পড়েছিল, এরপর তাঁকে সনাক্ত করার পর তাঁর দেহ রেড ক্রসের হাতে তুলে দেওয়া হয়। মুজাহিদ দানিশের মৃত্যুতে ক্ষমা চাইবে না বলেও জানিয়ে দেয়।

মুজাহিদ সাক্ষাৎকারে জানায় যে, ভারত অথবা ভারতের কোনও সংস্থার সঙ্গে তাঁদের কোনও মাধ্যমেই কথাবার্তা চলছে না। পাশাপাশি মুজাহিদ ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলে যে, তাঁরা যেন আফগান সেনার সাহায্য না করে। সে জানায়, ভারত দ্বারা দেওয়া ওয়ার প্লেনের ব্যবহার তালিবানদের বিরুদ্ধে করা হচ্ছে।