Press "Enter" to skip to content

নয়া মোড় নিল কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত! আলাপনের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে মোদী সরকার


নয়া দিল্লীঃ সোমবার সকালে নয়াদিল্লীর নর্থ ব্লকের কর্মিবর্গের মন্ত্রকে রিপোর্ট করার কথা ছিল রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Alapan Banerjee)। কিন্তু তিনি দিল্লী না গিয়ে রাজ্যের প্রশাসনিক সদর দফতর নবান্নে গিয়ে হাজিরা দিয়েছেন। এই কারণে রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ এনে ওনার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চলেছেন কেন্দ্র সরকার। কেন্দ্র সরকারের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেওয়া হলে কেন্দ্র আর রাজ্যের সংঘাত যে আরও বাড়বে, সেটা বলাই বাহুল্য।

সোমবার সকাল ১০টার আগেই রাজ্যের কেন্দ্র সরকারকে পাঁচ পাতার একটি চিঠি পাঠিয়ে জানিয়ে দেন যে, আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লী যাচ্ছেন না। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আলাপনের বলির নির্দেশিকা প্রত্যহারের আবেদনও জানিয়েছেন। কিন্ত কেন্দ্রের তরফ থেকে মুখ্যমন্ত্রী আবেদন মানা হচ্ছে না। কেন্দ্র স্পষ্ট জানিয়ে দেয় যে, নির্দেশ অমান্য করায় আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কিছুদিন আগেই রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজের মেয়াদ আরও তিনমাস বাড়ানো আবেদন করা হয়েছিল রাজ্যের পক্ষ থেকে। রাজ্যের সেই আবেদন গ্রহণও করেছিল কেন্দ্র। কিন্তু এরপরেই কেন্দ্র মত বদলে ফেলে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিল্লী ডেকে পাঠায়। আরেকদিকে রাজ্যও নাছোড়বান্দা হয়ে আলাপনকে দিল্লী পাঠাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে।

উল্লেখ্য, কলাইকুণ্ডায় প্রধানমন্ত্রীর ইয়াস বিপর্যয় নিয়ে করা পর্যালোচনা বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন না রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ও। আর মুখ্যসচিবের সেই আচরণেই ক্ষুব্ধ কেন্দ্র। সেই কারণেই তাঁকে দিল্লীতে বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে অসমর্থিত সূত্রের । সেদিন আলাপনবাবু প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে না থেকে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে চলে গিয়ে প্রটোকল ভেঙেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আর সেই ঘটনার কয়েক ঘণ্টা পরেই আলাপনকে দিল্লীতে বদলির নির্দেশ দেয় কেন্দ্র।