Press "Enter" to skip to content

পাকিস্তানকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরকে দখল মুক্ত করার নির্দেশ দিলো ভারত

নয়া দিল্লীঃ  () পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের () গিলগিট-বালটিস্তানে পাকিস্তান দ্বারা আয়োজিত নির্বাচন নিয়ে কড়া বিরোধিতা করেছে। পাকিস্তান () ওই এলাকায় বিধানসভার নির্বাচন আয়োজন করেছ, আগামী ১৫ নভেম্বর ওই অঞ্চলে নির্বাচন হতে চলেছে। জানিয়েছে যে, গিলগিট-বালটিস্তান অঞ্চল ের কেন্দ্র শাসিত প্রদেশ জম্মু কাশ্মীরের অংশ, সেখানে পাকিস্তান অবৈধ ভাবে কবজা জমিয়ে বসে আছে।

বিদেশ মন্ত্রালয় একটি বয়ান জারি করে বলেছে, আমরা ১৫ ই নভেম্বর ২০২০ তে গিলগিট-বালটিস্তানে হতে চলা নির্বাচনের খবর পেয়েছি। আমরা পাকিস্তানের এই পদক্ষেপের কড়া বিরোধিতা করছি। বয়ানে বলা হয়েছে যে, ভারত এই কথা আবারও বলছে যে, কেন্দ্র শাসিত প্রদেশ জম্মু কাশ্মীর আর লাদাখের সাথে সাথে গিলগিট বালটিস্তান অঞ্চল ১৯৪৭ সাল থেকেই ভারতের অভিন্ন অংশ। পাকিস্তান সরকার অবৈধ আর জোর করে ওই এলাকায় কবজা করে রেখেছে। সেখানে তাঁদের কোনও অধিকার নেই।

বয়ানে বলা হয়েছে যে, ভারত সরকার গিলগিট-বালটিস্তান (নির্বাচন আর কার্যবাহ সরকার) সংশোধন আদেশ ২০২০ এর মতো কাজ গুলোকে সম্পূর্ণ ভাবে খারিজ করে দেওয়া হয়েছে। নয়াদিল্লি অবৈধ ও জোরপূর্বক দখলের অধীনে অঞ্চলগুলির স্থিতি পরিবর্তন করার ইসলামাবাদের প্রয়াসের বিরোধিতা করে।

এতে আরও বলা হয়েছে যে এই ধরনের পদক্ষেপ জম্মু ও কাশ্মীরের কিছু অংশ এবং পাকিস্তান দ্বারা লাদাখ কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলির অবৈধ দখল গোপন করতে পারে না, আর না গত সাত দশক ধরে পাকিস্তানের অধিকৃত অঞ্চলে বসবাসকারী মানুষের স্বাধীনতা লঙ্ঘন করাকে লোকাতে পারে।

বয়ানে বলা হয়েছে যে, এই লোক দেখানো নির্বাচন পাকিস্তান দ্বারা তাঁদের অবৈধ কবজা করা অঞ্চলে নিজেদের সেনার মোতায়েন করার জন্য করানো হচ্ছে। আমরা পাকিস্তানকে তাঁদের অবৈধ ভাবে কবজা করা অঞ্চল গুলোকে খালি করার আহ্বান করছি।