Press "Enter" to skip to content

পাকিস্তানে আরও এক হিন্দু কিশোরীকে অপহরণ করার পর ধর্মপরিবর্তন করিয়ে বিয়ে দেওয়া হল মুসলিমের সাথে!


ে () বসবাসকারী সংখ্যালঘু হিন্দু আর শিখেদের উপর ধার্মিক অত্যাচার দিনদিন বেড়েই চলেছে। সম্প্রতি সিন্ধ প্রান্তের () থেকে একটি হিন্দু কিশোরীকে অপহরণ করার পর তাঁর জোর করে ধর্মপরিবর্তন করানো হয়। এরপর জোর করে তাঁকে একটি মুসলিম যুবকের সাথে বিয়েও দেওয়া হয়। রিপোর্ট অনুযায়ী, সিন্ধ প্রান্তের জাকোবাবাদের  বাসিন্দা মেহেক কুমারিকে () ১৫ই জানুয়ারি অপহরণ করা হয়। এরপর জাকোবাবাদের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষেরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওর মাধ্যমে জানা যায় যে, ওই হিন্দু কিশোরীকে অপহরণ করে মুসলিম যুবক আলী রাজার সাথে নিকাহ করিয়ে দেওয়া হয় জোর করে। ভিডিওতে হিন্দু কিশোরী আর মুসলিম যুবককে একসাথে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে। হিন্দু কিশোরী ভিডিওতে জানায় যে, সে নিজের ইচ্ছেতেই ধর্মপরিবর্তন করে মুসলিম যুবকের সাথে বিয়ে করেছে।

ধর্মপরিবর্তনের পর মেহেক কুমারির নাম আলিজা রাখা হয়েছে। ভিডিওতে কিশোরী জানায় যে, সে নিজের ইচ্ছেতে ধর্মপরিবর্তন করে ইসলাম কবুল করেছে। কিশোরী বলে, তাঁর বয়স ১৮ আর আমি নিজের মা বাবা এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের সুরক্ষা চাই। আমি আর আমার স্বামী নিজের সুরক্ষার জন্য আদালতে একটি মামলাও দায়ের করেছি।