Press "Enter" to skip to content

পাকিস্তানে তৃতীয়বার ভাঙা হল মহারাজা রণজিৎ সিংয়ের মূর্তি, হামলাকারীদের ভিডিও ভাইরাল


পাকিস্তানের লাহোরে আরও একবার মহারাজা রণজিৎ সিংয়ের মূর্তি ভাঙল একদল মানুষ। শোনা যাচ্ছে যে, পাকিস্তানের কট্টরপন্থী সংগঠন TLP-র লোকেরা এই মূর্তিটি ভেঙেছে। হামলাকারীরা মহারাজা রণজিৎ সিংয়ের বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়ে মূর্তি ভেঙে ফেলে। তবে কয়েকজন হামলাকারীদের রোখার চেষ্টা করেছিল, কিন্তু হামলাকারীরা তাঁদের কাজে সফল হয়ে যায়।

কাঁসা দিয়ে বানানো ৯ ফুটের মূর্তিতে মহারাজা রণজিৎ সিং ঘোড়ার উপরে বসে ছিলেন। আর ওনার হাতে তলোয়ার ছিল। পাকিস্তানের সংখ্যালঘুদের প্রতিটি স্মরণীয় তথা স্মৃতি সৌধ এবং মন্দির সবসময় সংখ্যাগুরু মুসলিমদের নিশানায় থাকে। আর সে কারণেই এবার রণজিৎ সিংয়ের মূর্তি ভাঙল কট্টরপন্থীরা।

মূর্তি ভাঙার এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল হারে হচ্ছে। যদিও এখনও হামলাকারীদের সনাক্ত করা হয়নি বলে জানা গিয়েছে। পুলিশ মামলার তদন্তে নেমেছে। মূর্তির হাত-পা এবং অন্যান্য অংশুগুলি ভেঙে দেয় হামলাকারীরা। তবে মূর্তিটির আরও বেশি ক্ষতি হওয়ার আগে সেখানকার কয়েকজন মানুষ হামলাকারীদের বাধা দেয়।

https://platform.twitter.com/widgets.js

লাহোরে মহারাজা রণজিৎ সিংয়ের এই মূর্তিটি ২০১৯ সালে উন্মোচন করা হয়েছিল। তবে এই প্রথম না যে, এই মূর্তির উপর হামলা হল। এর আগেও বেশ কয়েকবার এই মূর্তিতে হামলা হয়েছে। কদিন আগেই একটি গণেশ মন্দিরে হামলা চালিয়েছিল মুসলিম কট্টরপন্থীরা। তাঁরা দেব দেবীর মূর্তি সহ মন্দিরের আসবাবপত্র ভেঙে দিয়েছিল। এরপর পাকিস্তান হামলাকারীদের মধ্যে কয়েকজনকে গ্রেফতার করে এবং মন্দিরটি মেরামত করে আবারও হিন্দুদের হাতে তুলে দেয় ।