Press "Enter" to skip to content

পাকিস্তানে স্বাধীনতা দিবস পালন করতে চাইছিলেন মহত্মা গান্ধী! সামনে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য

[ad_1]

মহত্মা গান্ধী (Mahatma Gandhi) দেশ স্বাধীন হওয়ার প্রথম দিন মানে ১৫ই আগস্ট ১৯৪৭ এ পাকিস্তানে (Pakistan) কাটাতে চেয়াছিলেন। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপির নেতা এমজে আকবর (M J Akbar) তাঁর নতুন বইতে এই দাবি করেন। এমজে আকবর ভারত আর পাকিস্তানের ভাগ নিয়ে নিজের নতুন বই ‘গান্ধী হিন্দুইজমঃ দ্য স্ট্রাগল এগেনস্ট জিন্নাহ ইসলাম” (Gandhi’s Hinduism the Struggle against Jinnah’s) এ এই কথা বলছেন। উনি বলেছেন, ‘মহত্মা গান্ধী দেশ ভাগের পক্ষে ছিলেন না। উনি এটাকে ক্ষণিকের পাগলামি বলে আখ্যা দিয়েছেন।”

ওই বইতে বিচারধারা আর সেই সমত ব্যাক্তিদের সমীক্ষা করা হয়েছে, যারা দেশ ভাগে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল। অনেক ভুলের কারণে ১৯৪০ থেকে ১৯৪৭ পর্যন্ত ভারতের বিস্ফোটক রাজনীতি হয়েছিল। ওই বই অনুযায়ী, মহত্মা গান্ধী একজন প্রকৃত হিন্দু ছিলেন, আর উনি এই দেশে সমস্ত ধর্মের মানুষকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইছিলেন।

আরেকদিকে, জিন্নাহ রাজনৈতিক মুসলিম ব্যাক্তি ছিল। সে ইসলামের নামে একটি উপমহাদ্বিপ বানানোর জন্য প্রতিবদ্ধ ছিল। আর তাঁর এই উৎসাহ ব্রিটেনের সাথে হওয়া চুক্তির পর এসেছিল। ১৯৪০ সালে হওয়া চুক্তিকে ‘আগস্ট অ্যাফেয়ার” নামে জানা যায়।

ওই বইতে লেখা হয়েছে যে, ৩১ মে ১৯৪৭ সালে মহত্মা গান্ধী পাঠান নেতা আবদুল গফফর খানকে বলেছিলেন যে উনি পশ্চিম ফ্রন্টিয়ারে যেতে চান আর স্বাধীনতার পর সেখানেই থাকতে চান। আবদুল গফফর খানকে ফ্রন্টিয়ার গান্ধীর নামেও জানা যায়।

[ad_2]