Press "Enter" to skip to content

পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মাদ্রাসাগুলো বিশ্বের সন্ত্রাসের ঘাঁটি, UNRC-তে বললেন বিশ্লেষক


নয়া ইউরোপিয়ান ফাউন্ডেশন ফর সাউথ এশিয়ান স্টাডিজের এক বিশ্লেষক পাকিস্তান (Pakistan) আর আফগানিস্তানের (Afghanistan) ধার্মিক স্কুলগুলি সন্ত্রাসের আঁতুড়ঘর হওয়া নিয়ে চিন্তা জাহির করেছেন। ইউনাইটেড নেশন হিউম্যান রাইটস-র ৪৮ তম অধিবেশনে অ্যান হেকেনডর্ফ বলেন, ‘এটা সবাই জানে যে দক্ষিণ এশিয়ায় সন্ত্রাসবাদীদের রমরমা ধার্মিক স্কুল আর মাদ্রাসার কারণেই বেড়েছে। ের একটি বিকৃত এবং অতি-কট্টর বিচারধারা এখনও পাকিস্তান আর আফগানিস্তানে কোনও বাধা ছাড়াই বেড়ে উঠছে।”

হেকেনডর্ফ বলেন, তালিবান আর কুখ্যাত হক্কানি নেটওয়ার্কের মতো সংগঠন পাকিস্তানের মাদ্রাসা থেকেই তৈরি হয়েছে। লস্কর-ই-তইবা আর জইশ-ই-মোহম্মদের মতো জঙ্গি সংগঠন পাকিস্তানের গোয়েন্দা এজন্সি -র মদতে সন্ত্রাসবাদী গতিবিধি চালাচ্ছে।

হেকেনডর্ফ বলেন, পাকিস্তান আর আফগানিস্তানের অনেক ধার্মিক স্কুল ও মাদ্রাসা যুব সমাজকে জেহাদের জন্য বাধ্য করে। সেখানে তাঁদের অন্য ের প্রতি ঘৃণার পাঠ পড়ানো হয় আর তাঁদের সন্ত্রাসের রাস্তায় নিয়ে যাওয়া হয়।

হেকেনডর্ফ বলেন, বিশ্বকে তালিবানের হরেকরকম প্রতিশ্রুতি থেকে দূরে থাকা উচিৎ। তালিবান শিক্ষা নিয়েও গোটা বিশ্বে মিথ্যা বলে যাচ্ছে। তলিবান আর্থিক দিক থেকে কমজোর। আর এই কারণে আবারও আরেকটি প্রজন্ম সন্ত্রাসের রাস্তা আপন করে নেবে। এই কট্টরতা থেকে বিশ্বকে বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।