Press "Enter" to skip to content

পাঞ্জাবের ঘটনা নিয়ে প্রথম প্রতিক্রিয়া অমরিন্দর সিং-র, বড় দাবি তুলে বাড়ালেন চান্নি সরকারের চিন্তা

নয়া দিল্লিঃ পাঞ্জাব আজকাল প্রতিটি খবরের শিরোনামে উঠে আসছে এবং এটি হওয়ার পিছনে একটি বিশেষ কারণ রয়েছে। কীভাবে প্রধানমন্ত্রী কনভয় আটকানো হল, এবং তারপরে কীভাবে তার সুরক্ষা স্কোয়াড তাঁকে উদ্ধার করেছিল, এটিই এখন সবথেকে চর্চার বিষয়। এখন এমনকি সুপ্রিম কোর্টও এটির তদন্ত করার কথা বলছে এবং শীর্ষ আদালত এও বলেছে যে, এটি দেশের জন্য লজ্জার বিষয়। আর এই নিয়ে বড় বড় নেতার প্রতিক্রিয়াও এসেছে, যার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথাটি বলেছেন পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং।

পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনাকে খুবই দুর্ভাগ্যজনক আখ্যা দিয়ে নিজের তরফ থেকে একটি বয়ান জারি ক্রেন। সেখানে তিনি বলেন, ফিরোজপুরে প্রধানমন্ত্রীর কনভয়কে সুরক্ষা না প্রদানের জন্য একমাত্র পাঞ্জাব সরকারই দায়ী। এরজন্য তিনি একমাত্র মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ চান্নিকেই দায়ী করেছেন।

তিনি এও বলেন যে, এতবর দুর্ঘটনা ঘটে যাওয়ার পর এখন এরা নিজের দায় ঝাড়তে ব্যস্ত। এদের নিজের পদ থেকে সরিয়ে এখুনি রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করার দরকার। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কনভয় ফেরত যাওয়ায় খতি পাঞ্জাবেরই হয়েছে, কারণ উনি কোটি কোটি টাকার প্রকল্পের শিলন্যাসে আসছিলেন।

আপনাদের বলে দিই যে, এত স্পর্শকাতর ঘটনার পরেও পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ চান্নি নিজের দায় ঝেড়েছেন সেটা আলাদা ব্যাপার, কিন্তু পাল্টা তিনি প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে বলেছেন যে, র‍্যালিতে লোক হয়েছিল না দেখেই তিনি এরকম নাটক করে আর সভায় আসেন নি।

বলে দিই, বিভিন্ন মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, যেখানে প্রধানমন্ত্রীর কনভয় আটকানো হয়েছিল, তাঁর পাশের একটি গুরুদ্বার থেকে মাইকে ঘোষণা করে লোক জড় করা হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি এও জানা গিয়েছে যে, সেদিনের কৃষক বিক্ষোভের কথা জানত পাঞ্জাব , কিন্তু এরপরেও তাঁরা কোনও পদক্ষেপ নেয়নি।